ট্র্যাভেল

ভারতে গেলে যে ৭ টিপস না মানলেই নয়!

অনন্যা শ্রাবন্তী প্রথম গেছেন প্রতিবেশী দেশ ভারতে। যেতে যেতেই বিভিন্ন অভিজ্ঞতা হচ্ছে তার, আর ভাবছেন এই কাজগুলো করলে বা আগে থেকে জানা থাকলে আরও কত সুবিধাই না হত তার! তার অভিজ্ঞতায় আসুন অল্প কথায় কিছু টিপস জেনে নেই, যেগুলো খেয়াল করলে আপনার ভারত ভ্রমণ হতে পারে সহজ ও নিরাপদ।

ভারতে গেলে উবার হতে পারে আপনার বন্ধু!

নতুন যারা ভারতে বেড়াতে যাবেন তাদের জন্য অনন্যা শ্রাবন্তীর কিছু পরামর্শ।

এক: ফোর জি মোবাইল থাকলে ভালো হয়। সস্তায় ডাটা অফার পাওয়া যায় বিভিন্ন রকম।

দুই: বাংলাদেশ থেকে সব কিছু লিখে নিয়ে আসবেন। সম্ভব হলে যেই হোটেলে থাকবেন তার ঠিকানাও লিখে নিয়ে আসবেন।

তিন: মোবাইল সিম নেওয়ার আগে আপনি অফার গুলো ভাল করে দেখে নেবেন। আমি ভোডাফোন নিয়েছি, যেটায় প্রতিদিন (৩০ দিন) এক জিবি হাই স্পীড ইন্টারনেট ডাটা ফ্রি। বাংলাদেশ কথা বলতে মিনিটে দুই টাকা কাটে। ৫০৯ রুপি করে লেগেছে, রোমিং করে পুরো ভারতে কাজ করবে বিভিন্ন নেটওয়ার্কে।

সুযোগ সুবিধা দেখে বেছে নিন আপনার পছন্দ মত মোবাইল ফোন ক্যারিয়ার।

চার: দেশ থেকে সব প্ল্যান করে আসা ভালো। একজন বাংলাদেশি ভাইকে দেখলাম, তিনি গোয়া যাবেন বলে এসেছিলেন, কিন্তু এখন যেতে পারছেন না। কারণ তিনি জানতে পেরেছেন গোয়াতে সব কিছুর দাম বেশি, তার সাথে থাকা বাজেটে পোষাবে না। তাই বাধ্য হয়ে শেষে কোলকাতাতেই পাঁচ দিন বেড়িয়ে গেলেন।

পাঁচ: যা লাগবে বলে ভাবছেন, তার থাকে বেশি টাকা সাথে রাখবেন। সবকিছু কখনই আপনার তৈরি করা প্ল্যান মত হবে না, হঠাৎ করেই খরচ বেড়ে যেতে পারে। সব টাকা এক সাথে রাখবেন না। আলাদা আলাদা জায়গায় ছোট বড় নোটে রাখতে পারেন।

ছয়: ভারতে ট্রেনের টিকেট পাওয়া যায় কিন্তু আপনি হাতে সময় নিয়ে আসবেন। হয়তো দুই বা তিন দিন কোলকাতাতেই থাকতে হতে পারে। যদি সম্ভব হয় দেশ থাকে টিকেট কেটে রাখবেন।

সাত: সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় নিজের আত্মবিশ্বাস। যেখানে যত সমস্যাই হোক, আপনাকে বিশ্বাস করতে হবে যে সমস্যার সমাধান হবেই।

ভ্রমণে গেলে সবকিছু যে আপনার পরিকল্পনা মতো হতেই হবে এমনটি নয়। অনিশ্চয়তা ভ্রমণেরই একটা অংশ। এই অনিশ্চয়তা থেকে অনেক রকম অভিজ্ঞতা হতে পারে, যেটা হয়ত আপনি হয়ত এমনিতে কখনোই পেতেন না।

সুত্রঃ প্রিয় ডট কম