লাইফ স্টাইল স্বাস্থ্য

জেনে রাখুন দৈনন্দিন জীবনে যা করলে ক্যান্সার হবে না

মারণরোগের কথা উঠলে প্রথমেই আসে ক্যান্সারের উল্লেখ। সারা বিশ্বে হাজার হাজার মানুষ কর্কটরোগের শিকার। ২০১২ সালের রিপোর্ট বলছে, সেই তালিকার শীর্ষে রয়েছে ডেনমার্কের নাম। তারপর রয়েছে ফ্রান্স, অস্ট্রেলিয়া, বেলজিয়াম, নরওয়ে, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, আয়ারল্যান্ড, রিপাবলিক অফ কোরিয়া, নেদারল্যান্ডসের উল্লেখ। ডেনমার্কে প্রত্যেক ১ লক্ষ মানুষের মধ্যে অনন্ত ৩৩৮জন ক্যান্সারে আক্রান্ত। আজ থেকে ১০ বছর আগে ভারতের নামও ছিল সেই তালিকায়।

স্বাস্থ্য সচেতনতা বাড়ানোর কারণে এখন পরিস্থিতি অনেকটাই সামাল দেওয়া গেছে। তুবও ২০১৫ সালের একটি রিপোর্ট বলছে, এ দেশে প্রতিদিন অন্তত ১,৩০০জন মানুষের মৃত্যু হয় ক্যান্সারের কারণে। চিকিৎসকেরা বলেন, ৫০ পেরোলেই কর্কটরোগের প্রকোপ পড়তে পারে আমাদের শরীরে। সঠিক জীবনধারণ মেনে চললে কমতে পারে মারণরোগের সম্ভাবনা। কী করলে সেই সম্ভাবনাকে কমিয়ে ফেলা যাবে, সেটাই জেনে নেওয়া যাক:-

.ক্যান্সারকে দমাতে পারবে, এমন ভ্যাক্সিন আসেনি বাজারে। কিন্তু নিয়মিত এক্সারসাইজ় করলে এর হাত থেকে মুক্তি পেতে পারেন। বিশেষ করে ব্রেস্ট ও কোলন ক্যান্সার রুখতে এক্সারসাইজ় মাস্ট।

.উচ্চতা অনুযায়ী শরীরের ওজন কত হওয়া উচিত সেটি জেনে নিতে হবে প্রথমেই। শরীরের অনুপাতে বেশি ওজন কিন্তু ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনাকে দ্বিগুণ করে দিতে পারে। ওভার ওয়েটের কারণে ক্যান্সার হয়। এই তথ্য অনেকেরই অজানা। প্রসটেট, প্যানক্রিয়াস, ইউটেরাস, কোলন, ওভারিতে ক্যান্সার হওয়ার অন্যতম কারণ হতে পারে অতিরিক্ত ওজন। তাই অতিরিক্ত ওজন কমিয়ে ফেলতে হবে।

.দীর্ঘক্ষণ বসে বসে কাজ করলে ক্যান্সারের সম্ভাবনা বাড়ে। এছাড়াও, সারাক্ষণ এক জায়গায় বসে থাকা, শুয়ে থাকা, TV দেখা এসবের কারণে ওজন বাড়ে ও তাতে ক্যান্সারের সম্ভাবনাও বাড়তে পারে।

.সিগারেট, তামাক, বিড়ি খাওয়ার অভ্যেস থাকলে ক্যান্সার হওয়ার সম্ভাবনা বাড়ে। এমনকী, মদ্যপানও শরীরে কর্কটরোগ হওয়াকে প্রশ্রয় দেয়।

.স্কিন ক্যান্সার হয় সূর্যের অতিবেগুনি রশ্মির কারণে। এর জন্য সূর্যের ক্ষতিকারক রশ্মি থেকে নিজেকে বাঁচিয়ে চলতে হবে। শরীর ঢাকা পোশাক ও সানস্ক্রিন মেখে বাইরে বেরনোর অভ্যেস তৈরি করতে হবে। সূত্র- ইন্ডিয়া নিউজ