জাতীয়

শেয়ারবাজার নিয়ে একি বললেন সালমান এফ রহমান

salman-f-rahman-২০১০-১১ সালে মার্কেট ধসের পর বেশ সক্রিয় ছিলেন বেক্সিমকো গ্রুপের কর্ণধার ও প্রধানমন্ত্রীর প্রাইভেট ইনভেষ্টমেন্ট এফেয়ার্স এর উপদেষ্টা সালমান এফ রহমান। ঐসময়ে বাংলাদেশ ফান্ড থেকে শুরু করে বাজার স্থিতিশীলকরণ তহবিল গঠনে তার ভূমিকা ছিলো সবার আগে। কিন্তু হঠাৎ করেই মার্কেট থেকে দূরে সরে পড়েন সালমান এফ রহমান। তার দূরে সরে যাওয়াতে বাংলাদেশ ফান্ড গঠন হলেও তার কোনো সফলতা নেই, বাজার স্থিতিশীলকরণ তহবিল গঠনতো সেইসময়ই অন্ধকারে পড়ে গিয়েছে। তবে সম্প্রতি শেয়ারবাজার নিয়ে ফের মুখ খুললেন সালমান এফ রহমান।

গতকাল অনুষ্ঠিত বাংলাদেশ-চায়না ক্যাপিটাল মার্কেটস গোলটেবিল আলোচনায় বর্তমান মার্কেট নিয়ে বেশকর্কশভাষায় হতাশা প্রকাশ করেছেন তিনি। তিনি বলেছেন, গত এক দশকে যেখানে দেশের অর্থনীতি অবিশ্বাস্য গতিতে এগিয়ে গেছে সেখানে ক্যাপিটাল মার্কেটের অগ্রগতি খুবই হতাশাজনক। অনেক লোক শুধু মুখেই বড় বড় কথা বলেছেন কিন্তু কোনো পদক্ষেপ নেয়া হয়নি। কোনটা করলে মার্কেটের জন্য ভালো হবে সেই সঠিক দিক নির্দেশনা কেউই দিতে পারেনি। এর একটি কারণ হচ্ছে বোঝার অভাব। বিনিয়োগকারী, নিয়ন্ত্রক সংস্থা কেউ মার্কেটকে বুঝে উঠতে পারেনি। যখনই বাজার উন্নয়নে কোনো উদ্যোগ নেয়া হয়েছে তখনই মানুষ অবিশ্বাস করেছে যে এর পেছনে নিশ্চয়ই কোনো কু-মতলব আছে। মার্কেটে সাউন্ড ইন্সটিটিউশন প্লেয়ার নেই। যে কারণে মার্কেটের গভীরে যাওয়া যাচ্ছে না বলে মনে করেন সালমান এফ রহমান।

তিনি আরো বলেন, বর্তমান মার্কেট রেটেইলারদের মাধ্যমে চলছে। অন্যদিকে এতো বিশাল পরিমাণ বাজার মূলধনী মার্কেটে প্রাতিষ্ঠানিক বিনিয়োগকারীরা শর্টসেলের দিকে ঝুঁকছে। ডিএসই’র সঙ্গে চায়না কনসোর্টিয়ামের শেয়ার পারচেজ এগ্রিমেন্ট সম্পর্কে সালমান এফ রহমান বলেন, ডিএসই এবং শেনঝেন-সাংহাই কনসোর্টিয়াম স্টক এক্সচেঞ্জের মধ্যে শেয়ার কেনার যে চুক্তি হয়ে তা বর্তমান মার্কেটের ব্রেকথ্রু বলা যায়। এটি মার্কেটকে আরো শক্তিশালী করবে জানান তিনি।

জুমবাংলানিউজ/এআর