জাতীয় বিভাগীয় সংবাদ রাজশাহী

হোস্টেলের ছাত্রীদের উপর ছাত্রলীগের হামলা, আহত ১৫

রাজশাহী ইনস্টিটিউট অব হেলথ টেকনোলজির (আইএইচটি) ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগ হামলা চালিয়েছে। এ ঘটনায় প্রায় ১৫ জন আহত হয়েছে। বুধবার সকাল সাড়ে ১১টার দিকে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীরা হোস্টেলের ছাত্রীদের উপর হামলা চালায়। ছাত্রলীগের হামলা এবং এর পরবর্তী অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে আইএইচটি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করেছে কর্তৃপক্ষ। ছাত্রীদের ওপর হামলার ঘটনায় ক্যাম্পাসে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়লে কর্তৃপক্ষ এ ঘোষণা দেয়।

হামলায় আহতরা হলেন- আইএইচটির ফার্মেসি বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের ছাত্রী রুপা (১৯), একই বিভাগের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী নাজনীন আক্তার (১৮), ল্যাব বিভাগের ছাত্রী নিশাত (১৮), ল্যাবের প্রথম বর্ষের ছাত্রী মোহনা, প্রথম বর্ষের শিক্ষার্থী আফরিন শারমিন ও বৃষ্টি। এদের মধ্যে তিনজনকে রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাপাপাতালে ভর্তি করা হয়।

একাধিক ছাত্রী অভিযোগ করে বলেন, বুধবার সকালে ছাত্রলীগ নেতাকর্মীদের অশালীন আচরণ ও চাঁদাবাজির প্রতিবাদে নিরাপত্তার দাবিতে অধ্যক্ষের কার্যালয়ে স্মারকলিপি দিতে যান তারা। স্মারকলিপি দিয়ে নিরাপত্তা নিশ্চিত না করা পর্যন্ত অধ্যক্ষের কার্যালয়ে অবস্থান নেন ছাত্রীরা।

এ সময় ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা মিছিল নিয়ে ছাত্রীদের ওপর হামলার চেষ্টা করে। ছাত্রলীগ মিছিল নিয়ে ভেতরে প্রবেশের চেষ্টা করে। এসময় সাধারণ শিক্ষার্থীরা বের হতে চাইলে ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা তাদের ধাক্কা দিয়ে ফেলে দেয় এবং অনেকের চুলের মুঠি ধরে ফেলে দেয়। এতে অন্তত ১৫ জন আহত হয়।

ঘটনাস্থলে থাকা এসআই মাহবুব জানান, পরিস্থিতি মোকাবেলায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে। এ ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করা হয়নি বলে জানান তিনি।

আইএইচটির অধ্যক্ষ সিরাজুল ইসলাম জানান, ‘বিভিন্ন দাবি নিয়ে ছাত্রীরা আমার কাছে এসেছিল। তবে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে তাদের হোস্টেলের ভেতরে চলে যেতে বলা হয়। তারা আমার রুম থেকে বের হয়ে যাওয়ার পর তাদের ওপর হামলার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনার জের ধরে ক্যাম্পাসে উত্তেজনা আরও বেড়ে যায়।’

ঘটনার পর তাৎক্ষণিকভাবে একাডেমিক কাউন্সিলের সভা ডাকা হয়। সভা শেষে রাজশাহী আইএইচটি অনির্দিষ্টকালের জন্য বন্ধ ঘোষণা করা হয়। শিক্ষার্থীদের বুধবার বিকেলের মধ্যে হল ছাড়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। পরিস্থিতি স্বাভাবিক হলে শিক্ষা প্রতিষ্ঠানটি খুলে দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।

বিষয়টি নিয়ে কথা বলার চেষ্টা করা হয় আইএইচটির ছাত্রলীগ নেতাদের সাথে। তাদের কাউকে পাওয়া যায়নি। তবে মহানগর ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদ হাসান রাজিব জানান, ছাত্রীদের ওপর ছাত্রলীগের যে হামলা চালানোর কথা বলা হচ্ছে, তা সত্য নয়। ছাত্রীরা হুড়োহুড়ি করে বের হতে গিয়ে আহত হয়েছেন বলে দাবি করেন তিনি।



সর্বশেষ খবর