জাতীয়

জানতে পারলাম ‘আমি বিক্রি হয়ে গেছি’

নারায়ণগঞ্জের বন্দর উপজেলায় মোটা অঙ্কের বেতনে চাকরি দেয়ার প্রলোভনে বিদেশে পাঠানোর নামে এক গৃহবধূকে সৌদি আরবে পাচারকারীদের হাতে বিক্রি করে দেয়ার অভিযোগ পাওয়া গেছে।

সেই সঙ্গে সৌদি আরবে বিক্রি হওয়া গৃহবধূক জহুরা বেগম নির্মম নির্যাতনের শিকার হয়েছেন। নির্যাতন সহ্য করতে না পারায় গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় হুইলচেয়ারের মাধ্যমে জহুরা বেগমকে দেশে পাঠিয়ে দেয়া হয়।

দেশে ফিরে রোববার বিকেলে উপজেলার সোনাকান্দা বেপারিপাড়ার গৃহবধূ নির্মম নির্যাতনের শিকার জহুরা বেগম সৌদিতে তার ওপর নির্যাতনের কথা বর্ণনা করেন।

তিনি জানান, বন্দর উপজেলার ফরাজিকান্দা কবরস্থান রোড এলাকার আদম বেপারি দিন ইসলাম দিনু মিয়া মোটা অঙ্কের বেতনের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে সৌদি আরবে পাঠান।

সেখানে গিয়ে জহুরা জানতে পারেন, সৌদি আরবের পাচারচক্র সদস্যদের কাছে তাকে বিক্রি করে দেন দিনু মিয়া। পরে তার ওপর নির্মম নির্যাতন করা হয়। নির্যাতনের একপর্যায়ে তাকে হুইলচেয়ার করে সৌদি আরব থেকে দেশে ফেরত পাঠানো হয়।

গৃহবধূ জহুরা বেগম বলেন, আমার ওপর নির্মম নির্যাতন করা হয়েছে। আমাকে পঙ্গু বানিয়ে দেয়া হয়েছে। আমি এ ঘটনার সুষ্ঠু বিচার চাই ও প্রতারক আদম বেপারি দিন ইসলাম দিনুর দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি চাই।

অভিযোগ রয়েছে, আদম বেপারি দিনু মিয়া দীর্ঘদিন ধরে বন্দর উপজেলার বিভিন্ন এলাকা থেকে বিধবা, তালাকপ্রাপ্ত ও নিরীহ নারী-তরুণী, গার্মেন্টকর্মীদের ভালো চাকরি দেয়ার নাম করে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব, দুবাই, কাতারসহ বিভিন্ন দেশে অবাধে বিক্রি করে দিচ্ছেন। দিনু মিয়ার সঙ্গে আন্তর্জাতিক পাচারকারী চক্রের সম্পর্ক রয়েছে বলেও অভিযোগ করেন স্থানীয়রা।