জাতীয় বিভাগীয় সংবাদ

হত্যার পর প্রেমিকার ‘মরদেহ’ ধর্ষণ, অভিযুক্ত আসামি র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার

ফাইল ছবি

জুমবাংলা ডেস্ক : নরসিংদীর শিবপুরে নিখোঁজ হওয়ার দুই দিন পর সাবিনা আক্তার (২১) নামে এক যুবতীর মরদেহ উদ্ধার ঘটনার রহস্য উদঘাটন করেছে র‌্যাব। ধর্ষণে বাধা দেয়ায় সাবিনাকে শ্বাসরোধে হত্যা করে প্রেমিক সাইফুল। পরে প্রেমিকার মরদেহ ধর্ষণ করেন তিনি।

এ ঘটনায় মঙ্গলবার (১১ জুন) রাতে র‌্যাবের হাতে গ্রেফতার হওয়া আসামি সাইফুল ইসলাম প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে এসব তথ্য জানিয়েছে। আসামি সাইফুল শিবপুর উপজেলার দুলালপুর খালপাড় গ্রামের মৃত হানিফ ফকিরের ছেলে।

বুধবার (১২ জুন) দুপুরে নরসিংদী প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব-১১ এর অধিনায়ক লে. কর্ণেল কাজী শামসের উদ্দিন জানান, নিখোঁজের দুইদিন পর ৮ জুন শিবপুরের কাজীর চর গ্রামের একটি কলা ক্ষেত থেকে একই উপজেলার মাছিমপুর মধ্যপাড়া গ্রামের মিলন মিয়ার মেয়ে সাবিনার মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

এ ঘটনায় নিহত সাবিনার মোবাইল নম্বরের সূত্র ধরে তথ্যপ্রযুক্তির সহায়তায় সাবিনার প্রেমিক সাইফুলকে গ্রেফতার করে র‌্যাব। পরে তার দেয়া তথ্য মতে তার বাড়ি থেকে নিহত সাবিনার ভ্যানিটি ব্যাগ, মোবাইল ও শ্বাসরোধে ব্যবহৃত শার্ট উদ্ধার করা হয়।

কৌশলে সাবিনাকে কলাবাগানে নেয়ার পর সেখানে ধর্ষণে বাধা দেয়ায় নিজের শার্ট গলায় পেঁচিয়ে সাবিনাকে হত্যা করে সাইফুল। পরে তার মরদেহ ধর্ষণ করে বলে প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে র‌্যাবের কাছে স্বীকার করেছে আসামি সাইফুল।

জুমবাংলানিউজ/এসওআর