খেলা-ধুলা

স্পিন সহায়ক উইকেটে অনুশীলন চলছে অজিদের

ক্রিকেট বোর্ডের সাথে ক্রিকেটারদের জটিলতা নিরসন অয়েছে। দূর হয়েছে অনিশ্চয়তার মেঘ। অস্ট্রেলিয়ার বাংলাদেশ সফর তাই চূড়ান্ত। বাংলাদেশ সফরকে সামনে রেখে  ডারউইনে প্রস্তুতি ক্যাম্প করছে অস্ট্রেলিয়ার ক্রিকেটাররা। বাংলাদেশ সফরের জন্য যথেষ্ট প্রস্তুতি নেয়া হবে বলে জানিয়েছেন প্রধান কোচ ড্যারেন লেহম্যান। বাংলাদেশের স্পিনারদের সামলানোর প্রস্তুতি নেওয়ার জন্য অনুশীলন চলচে বাংলাদেশের উইকেটের মতো স্পিন সহায়ক উইকেটে।

ডারউইনে এক সপ্তাহ অনুশীলন করবে স্মিথরা। বুধবার তাদের ডারউইন ক্যাম্প শুরু হয়েছে। ক্রিকেটারদের ফিটনেস নিয়ে কোনো সমস্যা নেই বলে জানিয়েছেন অজি কোচ।

ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়াকে ড্যারেন লেহম্যান বলেন, “সেখানে (বাংলাদেশে) না যাওয়া পর্যন্ত কোনো কিছু জানা যাবে না। বোর্ডের সাথে আলোচনা চলাকালীন সময়ে রাজ্যদলের সাথে ক্রিকেটাররা অনুশীলন করেছে।”

“ফিটনেসের ক্ষেত্রে আমরা সম্ভবত এগিয়ে থাকব। ক্রিকেটাররা অনেক ফিট এখন। এটা দারুণ ব্যাপার। আমরা যাওয়ার আগে স্কিলে প্রয়োজনীয় উন্নতি ঘটাতে চেষ্টা করব।”

উপমহাদেশের কন্ডিশন ও উইকেট বরাবরই স্পিন সহায়ক। বাংলাদেশ যে স্পিনারদের নিয়েই বোলিং আক্রমণ সাজাবে তাও অনেকটা নিশ্চিতই। এমন অপরিচিত কন্ডিশনে মানিয়ে নিতে সহায়তা করছে ডারউইন ক্যাম্প। লেহম্যান বলেন, “এনটিসিএ দারুণ কাজ করেছে। আমরা বাংলাদেশে যে ধরণের উইকেট পাব তার সাথে মিল রেখে তারা উইকেট বানিয়েছে। নিচু, ধীর ও স্পিন সহায়ক উইকেট।”

“এখানে ঢাকার মতো তিনটি ও চট্টগ্রামের মতো তিনটি  উইকেট রয়েছে। একটি সেন্টার উইকেট রয়েছে ম্যাচ অনুশীলনের জন্য,” যোগ করেন তিনি।

১৮ আগস্ট বাংলাদেশে পা রাখার কথা রয়েছে অস্ট্রেলিয়ার। ফতুল্লায় দুই দিনের একটি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলবে তারা। এরপর ঢাকায় ২৭ অগাস্ট প্রথম টেস্ট ও চট্টগ্রামে ৪ সেপ্টেম্বর দ্বিতীয় টেস্ট অনুষ্ঠিত হবে।