আন্তর্জাতিক

সেই মা নিজের অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েদের খদ্দেরের মনোরঞ্জন প্রত্যক্ষ করতো

নিজের দুই অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েকে দিয়ে খদ্দেরদের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক স্থাপনের দৃশ্য উপভোগ করতেন মালেশিয়ায় ১৫০ বছরের কারাদন্ডপ্রাপ্ত এক নারী।

সম্প্রতি তাকে দু’মেয়েকে দিয়ে দেহ ব্যবসা করানোর অভিযোগে এ সাজা দিয়েছে সে দেশের আদালত। এ খবর দিয়েছে মালেশিয়ার অনলাইন দ্য স্টার।

৩৯ বছর বয়সী ওই নারী তার ১০ ও ১৩ বছর বয়সী দুই মেয়েকে বলপূর্বক পতিতাবৃত্তিতে বাধ্য করতো।

বাংলাদেশী যুবকদের কাছে নিজের অপ্রাপ্ত বয়স্ক মেয়েদের যৌনকর্মের জন্য ভাড়া দিয়ে ক্ষান্ত হতো না সে। মেয়েরা যখন খদ্দেরদের মনোরঞ্জনে ব্যস্ত তখন সেখানে উপস্থিত থেকে তা প্রত্যক্ষ করতো সে। এতে ওই দুই বালিকা মানসিকভাবে বিপর্যস্ত হয়ে পড়ে।

এক পর্যায়ে ১৩ বছরের মেয়েটি লুকিয়ে তার মায়ের মোবাইল থেকে স্কুল শিক্ষিকার কাছে খুদেবার্তা পাঠায়। তাতে সে উল্লেখ করে- আমার মা আমাকে দিয়ে বিদেশিদের কাছে দেহ বিক্রি করাচ্ছে।

ওই শিক্ষিকা তৎক্ষণাৎ স্কুল কর্তৃপক্ষকে জানান। স্কুল কর্তৃপক্ষ সঙ্গে সঙ্গে ঘটনাটি শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর গোচরে আনে।

গ্রেপ্তার হবার পর অভিযোগ স্বীকার করেছে মা রূপী ওই নরপিশাচ। তাকে এ ঘটনায় ১৫০ বছরের কারাদন্ড দেয়া হয়। তার নিপীড়িত মেয়েদের রাষ্ট্রীয় আশ্রয়ে রাখা হবে। নিশ্চিত করা হবে সব ধরণের পরিচর্যা।