বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ব্যক্তিগত তথ্য উন্মুক্ত নিরাপদ নয়

জুমবাংলা ডেস্কঃ  সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে কারও অ্যাকাউন্টে জন্ম তারিখ, বন্ধু তালিকা, জাতীয় পরিচয়পত্র নম্বর প্রভৃতি ব্যক্তিগত বিভিন্ন তথ্য উন্মুক্ত রাখলে হ্যাকিংয়ের ঝুঁকির পাশাপাশি ব্যক্তিগত নিরাপত্তার ঝুঁকিও বেড়ে যায় বলে জানিয়েছে অপরাধ গবেষণাবিষয়ক সংগঠন ক্রাইম রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস ফাউন্ডেশন (ক্রাফ)।

সম্প্রতি গত রোববার রাজধানীর ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটিতে আয়োজিত ‘সাইবার সিকিউরিটি : স্বাধীনতা, গোপনীয়তা, কর্তব্য’ শীর্ষক এক সেমিনারে এ তথ্য জানিয়েছেন বক্তারা।

সাইবার অপরাধ গবেষণা বিষয়ক সংগঠন ক্রাইম রিসার্চ অ্যান্ড অ্যানালাইসিস ফাউন্ডেশন (ক্রাফ) আয়োজিত এ সেমিনারে ক্রাফের সহ-সভাপতি তানভীর জোহা বলেন: আমরা সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে প্রায়শই নিজেদের জন্মতারিখ, ছবি, জাতীয় পরিচয় পত্রের ছবি বা সম্ভাব্য গন্তব্যের বিষয়বস্তু নিয়ে স্ট্যাটাস আপডেট করে থাকি। কিন্তু এই তথ্যগুলো থেকেই যে আমাদের এই অ্যাকাউন্টের নিরাপত্তা বিঘ্নিত হতে পারে তা আমরা অনেকেই জানি না।

নিজের নিরাপত্তার স্বার্থেই সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসব তথ্য সবার জন্য উন্মুক্ত না করারও পরামর্শ দেন তিনি।

অনুষ্ঠানে ‘বাঁচতে হলে জানতে হবে’ স্লোগান নিয়ে আইন বিষয়ক ব্যাপারগুলো নিয়ে সচেতনতামূলক আলোচনা করেন ইস্ট ওয়েস্ট ইউনিভার্সিটির প্রভাষক এবং ডিজিটাল টেকনোলজি বিশেষজ্ঞ সাইমুম রেজা পিয়াস।

এসময় তিনি সাইবার অপরাধ এবং সাইবার আইনের বিভিন্ন বিষয় সবার সামনে তুলে ধরেন।