বিনোদন

সমস্ত কিছু ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে

রাজকাহিনি ছিল মাল্টিস্টারার ছবি। তবে ছবিতে অভিনেত্রীদের গুরুত্ব ছিল অভিনেতাদের তুলনায় বেশি।
“আমরা ৭-৮ জন মেয়ে একসঙ্গে কাজ করছিলাম। একটি পাহাড়ে শুটিং ছিল। উষ্ণতা ছিল ৩ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। একটি লড়াইয়ের দৃশ্যের শুটিং হচ্ছিল। ওই শীতে কিন্তু আমরা প্রত্যেকে খুব ভালো কাজ করেছিলাম। আসলে কাজ করার যেন একটা শক্তি চলে এসেছিল। আক্ষরিক অর্থে তখন মনে হচ্ছিল যে, আমরা যেন সেই ১৯৪৭-এ আছি। আমাদের বাড়ি ভাগ হয়ে যাচ্ছে। দেশভাগ হয়ে যাচ্ছে। সমস্ত কিছু ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। আমরা ঝাঁপিয়ে পড়ছি। আমার কাছে তখন মনে হয়নি আমি আলাদা করে শুটিং করছি। মনে হচ্ছিল কোনও যুদ্ধেই যেন আমি অংশ নিয়েছি। ভারতীয় একটি গণমাধ্যমকে এক ভিডিও বার্তায় এসব কথাই বলছিলেন বাংলাদেশি অভিনেত্রী জয়া আহসান।

তিনি আরও বলেন, লোকে বলে কোনও ছবিতে দু’জন অভিনেত্রী থাকলেই মনোমালিন্য হয়ে যায়। কিন্তু আমাদের ৭ জন মেয়ের এমন একটা বন্ডিং হয়, যা আজও আছে। একটুও চিড় ধরেনি। এমনও ঘটনাও ঘটেছে যে ডিরেক্টোরিয়াল টিম বা ছেলেদের টিমকে আমরা আমাদের কাছেই ঘেঁষতে দিতাম না।

কলকাতায় তিনি যেক’টি ছবি করেছেন, তার তো অনেক স্মৃতিই আছে। কিন্তু রাজকাহিনী ছবিতে অভিনয়ের অভিজ্ঞতা এখনও মনে পড়ে জয়া আহসানের।

ভিডিও:বিশ্বের একমাত্র শহর, যেখানকার মানুষ জানেনই না টাকা-পয়সা কী জিনিস দেখুন (ভিডিও)

Add Comment

Click here to post a comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.