অপরাধ/দুর্নীতি

সপ্তম শ্রেণীর মাদ্রাসা ছাত্রীকে ৮ দিন আটকে রেখে ধর্ষণ করলো যুবক, অতঃপর..

একটি বাড়িতে প্রায় আট দিন আটকে রেখে সপ্তম শ্রেণীর এক মাদ্রাসা ছাত্রীকে ধর্ষণ করেছেন শাহীন আলম নামের যুবক। রোববার সন্ধ্যায় মেয়েটি টাঙ্গাইল জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আশিকুজ্জামানের আদালতে জবানবন্দি দেন।

শনিবার (১১ নভেম্বর) রাতে উপজেলার চিতেশ্বরী গ্রামের একটি বাড়ি থেকে পুলিশ মেয়েটিকে থেকে উদ্ধার করে। এ ব্যাপারে শনিবার রাতেই থানায় মামলা দায়ের করা হয়।

পুলিশ এবং মামলা সূত্রে জানা যায়, উপজেলার আজগানা ইউনিয়নের তেলিনা গ্রামের তেলিনা দাখিল মাদ্রাসার ওই ছাত্রীর সঙ্গে মোবাইল ফোনে পার্শ্ববর্তী চিতেশ্বরী গ্রামের এক যুবকের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। পরে গত ৩ নভেম্বর শাহীন মেয়েটিকে ফুঁসলিয়ে বাড়ি থেকে বের করে নিয়ে আসে। এরপর সে তাকে নিয়ে উধাও হয়। দুই দিন পরও মেয়েকে না পেয়ে গত ৫ নভেম্বর মেয়েটির বাবা মির্জাপুর থানায় সাধারণ ডায়েরি করেন।

পরে পুলিশ বিষয়টি আমলে নিয়ে তদন্ত শুরু করেন। তদন্তের এক পর্যায়ে পুলিশ শনিবার রাতে মেয়েটিকে উপজেলার চিতেশ্বরী গ্রামের একটি বাড়ি থেকে উদ্ধার করে। এ ঘটনায় মেয়েটির বাবা শনিবার রাতেই মির্জাপুর থানায় মামলা করেন।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার ওসি একে এম মিজানুল হক বলেন, এ ঘটনায় থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।