জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এখন প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশ : পলক

জুমবাংলা ডেস্ক : রাষ্ট্রপতির ভাষণের জন্য আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আলোচনায় অংশ নিয়ে তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এখন প্রযুক্তি নির্ভর ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তরিত হয়েছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর তথ্য ও প্রযুক্তি বিষয়ক উপদেষ্টা সজীব ওয়াজেদ জয়ের প্রত্যক্ষ দিক-নির্দেশনায় আগামী ৫ বছরে দেশের ১ কোটি ২৮ লাখ কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা হবে।

গত ৩ ফেব্রুয়ারি সংসদে এ আলোচনা শুরু হয়েছে। ওই দিন চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন করলে সরকারি দলের সদস্য আ স ম ফিরোজ তা সমর্থন করেন।

গত ৩০ জানুয়ারি একাদশ জাতীয় সংসদের প্রথম ও বছরের প্রথম অধিবেশনের শুরুর দিন সংবিধান অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি মোঃ আবদুল হামিদ সংসদে ভাষণ দেন।

রাষ্ট্রপতির ভাষণে আনীত ধন্যবাদ প্রস্তাবের ওপর আজ তৃতীয় দিনে তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক, সরকারি দলের সদস্য এনামুল হক, হাসান ইমাম খান, মুহম্মদ শফিকুর রহমান, আনোয়ারুল আবেদিন খান ও জাফর আলম আলোচনায় অংশ নেন।

তথ্য, যোগাযোগ ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক বলেন, রাষ্ট্রপতি তাঁর ভাষণে এদেশের উন্নয়নের চিত্র তুলে ধরেছেন।

তিনি বলেন, ২০০৯ সালের আগে বর্তমান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যখন ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের ঘোষণা দেন তখন অনেকের তা বিশ্বাস হচ্ছিল না। সরকার গঠন করে তিনি যখন তারুণ্যের শক্তিকে কাজে লাগিয়ে ধাপে ধাপে বাংলাদেশকে ডিজিটাল বাংলাদেশে রূপান্তর করেন। ২০০৯ সালে প্রযুক্তিনির্ভর কর্মসংস্থান বলতে কিছু ছিল না।

বিগত ১০ বছরে প্রযক্তি খাতে প্রায় ১০ লাখ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান হয়েছে এবং একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে প্রধানমন্ত্রী অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন, আগামী ৫ বছরে দেশের ১ কোটি ২৮ লাখ কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা হবে।

এ জন্য আইসিটি বিভাগ থেকে পরিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। এই সেক্টরে ২০ লাখ তরুণ-তরুণীর কর্মসংস্থান নিশ্চিত করা হবে। এ জন্য মানবসম্পদ উন্নয়নের সুনির্দিষ্ট পরিকল্পনা করা হয়েছে।

প্রতিমন্ত্রী জানান, বিগত ১০ বছরে স্কুল, কলেজ ও মাদ্রাসা পর্যায়ে সাড়ে ৯ হাজার আইসিটি ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। মাধ্যমিক পর্যায়ে সাড়ে ৬ হাজার শেখ রাসেল আইসিটি ল্যাব স্থাপন করা হয়েছে। সারাদেশে ২৮টি হাইটেক পার্ক নির্মাণ করা হচ্ছে। ঢাকার কারওয়ান বাজারে জনতা টাওয়ারে ৩০টি প্রতিষ্ঠানে প্রায় ১ হাজার তরুণ-তরুণী কাজ করছে। সারাদেশে প্রতিটি জেলায় একটি করে শেখ কামাল আইটি ট্রেনিং সেন্টার স্থাপন করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা নির্বাচনী ইশতেহারে তারুণ্যের শক্তিকে কাজে লাগিয়ে যে সমৃদ্ধ বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠার ঘোষণা দিয়েছেন তা বাস্তবায়নে প্রযুক্তি মন্ত্রণালয় পরিকল্পনা প্রণয়ন করেছে। তিনি বলেন, সারাদেশে শিগগিরই হাইস্পিড ইন্টারনেট সার্ভিস চালু করা হবে।

আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকারি দলের সদস্য শফিকুর রহমান বিএনপির ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান সাজাপ্রাপ্ত তারেক রহমানকে অবিলম্বে দেশে ফিরিয়ে এনে দন্ড কার্যকরের দাবি জানান।

সূত্র : বাসস

জুমবাংলানিউজ/এইচএম