খেলা-ধুলা

রিয়াল-বার্সাকে টপকে নেইমারের পিএসজি বিশ্বসেরা

রেকর্ড ২২২ মিলিয়ন ইউরোতে নেইমার জুনিয়রকে বার্সা থেকে ক্লাবে ভিড়ায় পিএসজি। এছাড়া এমবাপ্পেকেও ব্রাজিলীয়ান তারকার চাওয়াতে ধারে টেনে নেয় স্প্যানিশ ক্লাবটি। সে হিসেবে দেখা গেল ইউরোপের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক দেয়া দলের তালিকায় প্রথমে আসবে ক্লাবটি।

হলোও তাই। পারিশ্রমিক দেয়ার তালিকা শীর্ষে জায়গা করে নিয়েছে ফরাসি ক্লাবটি। পারিশ্রমিক দেয়ার দিক থেকে বার্সেলোনা রয়েছে দুই নম্বরে। ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের সবচেয়ে বেশি পারিশ্রমিক দেয়া ক্লাব কিন্তু সবমিলিয়ে তৃতীয়।

এই তালিকায় বার্সেলোনার চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী রিয়াল মাদ্রিদ রয়েছে ছয় নম্বরে। চেলসি চার এবং ম্যানচেস্টার সিটি রয়েছে পাঁচ নম্বরে।

জুভেন্টাস পারিশ্রমিক দেয়ার দিক থেকে শীর্ষ দশে সবার শেষে রয়েছে। বায়ার্ন মিউনিখ সাত, আর্সেনাল আট এবং লিভারপুল রয়েছে নয় নম্বরে।

১. পিএসজি: ক্লাবের খেলোয়াড় এবং কর্মকর্তাদের বার্ষিক ২৭ কোটি ৯০ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড পারিশ্রমিক দিয়ে থাকে পিএসজি। বাংলাদেশি মুদ্রায় যার পরিমাণ ৩০৫৫ কোটি টাকা। ফরাসি ক্লাবটির সবচেয়ে বেশি বেতনভোগী খেলোয়াড় অনুমিতভাবেই নেইমার। ব্রাজিলিয়ান তারকা সপ্তাহে ৫ লাখ ৩৭ হাজার ব্রিটিশ পাউন্ড পান।

২. বার্সেলোনা পারিশ্রমিক হিসেবে বার্ষিক ২৬ কোটি ৮০ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড খরচ করেছে। স্প্যানিশ জায়ান্টদের হয়ে সপ্তাহে সর্বোচ্চ ৫ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড পারিশ্রমিক পান লিওনেল মেসি।

৩. পারিশ্রমিকে ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের খরচ বার্সেলোনার প্রায় সমান। ইংলিশ ক্লাবটি খরচ করছে বার্ষিক ২৬ কোটি ৪০ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড। রেড ডেভিলদের হয়ে সপ্তাহপ্রতি সর্বোচ্চ ২ লাখ ৯০ হাজার ব্রিটিশ পাউন্ড পান।

৪. পারিশ্রমিক হিসেবে চেলসির বার্ষিক খরচ ২৫ কোটি ব্রিটিশ পাউন্ড। স্ট্যামফোর্ড ব্রিজের ক্লাবটির হয়ে প্রতি সপ্তাহে সর্বোচ্চ ২ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড পারিশ্রমিক পান এডেন হ্যাজার্ড।
৫. ম্যানচেস্টার সিটির বার্ষিক খরচ ২৪ কোটি ৪০ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড। ক্লাবটির হয়ে প্রতি সপ্তাহে সর্বোচ্চ ২ লাখ ২০ হাজার ব্রিটিশ পাউন্ড পান সার্জিও আগুয়েরো।

৬. তালিকার ছয় নম্বরে থাকা রিয়াল মাদ্রিদের বার্ষিক খরচ ২৪ কোটি ব্রিটিশ পাউন্ড। অনুমিতভাবেই ক্লাবটির হয়ে প্রতি সপ্তাহে সর্বোচ্চ ৩ লাখ ৬৫ হাজার ব্রিটিশ পাউন্ড পান ক্রিস্টিয়ানো রোনালদো।

৭. বায়ার্ন মিউনিখের বার্ষিক খরচ ২৩ কোটি ৫ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড। রবার্ট লেওয়ানদস্কি জার্মান ক্লাবটির সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া খেলোয়াড়। পারিশ্রমিক হিসেবে সপ্তাহপ্রতি সর্বোচ্চ ১ লাখ ৬০ হাজার ব্রিটিশ পাউন্ড পান।

৮. আর্সেনালের বার্ষিক খরচ ২১ কোটি ব্রিটিশ পাউন্ড। মেসুত ওজিল এবং অ্যালেক্সিস সানচেজ ইংলিশ ক্লাবটির সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া খেলোয়াড়। দুজনই সপ্তাহপ্রতি পান দেড় লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড।

৯. লিভারপুলেরও বার্ষিক খরচ ২১ কোটি ব্রিটিশ পাউন্ড। অলরেডদের হয়ে সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পান ফিলিপে কৌতিনহো। এই ব্রাজিলিয়ান অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার প্রতি সপ্তাহে পারিশ্রমিক হিসেবে পান ২ লাখ ব্রিটিশ পাউন্ড।

১০. ইতালিয়ান জায়ান্ট জুভেন্টাসের পারিশ্রমিক হিসেবে বার্ষিক খরচ ১৫ কোটি ব্রিটিশ পাউন্ড। আর্জেন্টাইন তারকা গঞ্জালো হিগুয়েইন ক্লাবটির সর্বোচ্চ পারিশ্রমিক পাওয়া খেলোয়াড়। তিনি সপ্তাহে ১ লাখ ৩০ হাজার ব্রিটিশ পাউন্ড পান।