বিনোদন

যে রাশির মেয়েদের এড়িয়ে চলবেন

নারীর সঙ্গ যেমন মধুর হয় তেমন তেঁতোও হয়। আর তাই গুরুজনেরা এই কারণেই বলেন নারীকে অতিমাত্রায় ঘাটাতে নেই। কারণ এর ফলে নারীর আসল রুপ বের হয়ে আসে। নারীর রাগী বা জেদি রুপ না দেখাটাই ভালো।

আবার রাগ গলে পানি হয়ে যাবে। তবে পাশ্চাত্য এক জ্যোতিষ জানাচ্ছেন , পাঁচ রাশির মহিলাদের না ঘাঁটানোই মঙ্গল।

বৃষ (জন্মদিন ২০ এপ্রিল-২০ মে): এই রাশির জাতিকারা অত্যন্ত জেদি। সমঝোতায় তাদের কোন বিশ্বাসই নেই। একবার খেপলে তাদের ঠাণ্ডা করা দুরূহ। তবে সময় দিলে তারা শান্ত হয়ে যান। মনে ক্ষোভ জমলে তারা সরব হয়ে ওঠেন।

সিংহ (জন্মদিন জুলাই ২৩-অগস্ট ২১): এই রাশির জাতিকাদের চরিত্রে নাটকীয়তার প্রবণতা বেশি। তারা আশেপাশের সবাইকে প্রভাবিত করতে চান। মাথায় রাগ চাপলে তারা নিজের অবস্থান থেকে এক চুলও নড়েন না। তর্কে এরা খুবই পাকা। এমনিতেই এরা মাথা গরম। রেগে গেলে প্রতিপক্ষকে অপমান করতে একটুও পিছপা হন না।

বৃশ্চিক (জন্মদিন অক্টোবর ২৩- নভেম্বর ২১): এই রাশির কন্যারা মনে করেন তারাই ঠিক। তারা যা বলবে সেটাই সত্য সেটাই প্রতিষ্ঠিত। আর এই ধরণের মন মানসিকতার কন্যাদের সাথে প্রতিনিয়ত ঝগড়া লেগে থাকাটা অস্বাভাবিক কিছু নয় । এরা আবার রাগ পুষে রাখেন। শোধ না তোলা পর্যন্ত এরা শান্তি পান না। তাই সাবধান।

ধনু (জন্মদিন নভেম্বর ২২-ডিসেম্বর ২১): এরা উদারচেতা। কিন্তু মাথায় রাগ চাপলে মুখে কিছু আটকায় না এদের। তখন যা মনে আসবে সেটাই মুখ থেকে উগড়ে আসবে। কিন্তু রাগ পড়লে এরা একেবারেই পানি।

মেষ (জন্মদিন ডিসেম্বর ২২-জানুয়ারি ১৯): এদের মেজাজ এমনিতে ঠাণ্ডা। সহজে আবেগ প্রকাশ করেন না। কিন্তু একবার যদি রাগ চাপে, তা হলে এদের সামলানো দায় হয়ে পড়ে। কারণ কোথায় আছে ঠান্ডা মানুষের ডান্ডার জোর বেশী!

ভিডিওঃ মহিলাদের সম্পর্কে ১০টি জিনিস যা জানলে অবাক হবেন

Add Comment

Click here to post a comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.