আন্তর্জাতিক

যে কারনে ১৭ দেশকে কালো তালিকাভুক্ত করলো ইইউ

যাক্স হ্যাভেন বা কর স্বর্গের দেশ বলে ১৭ দেশকে কালো তালিকাভুক্ত করেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন (ইইউ)। এছাড়া পর্যবেক্ষণ তালিকায় আছে আরো ৪৭টি দেশ। খবর বিবিসির।

দীর্ঘ ১০ মাস অনুসন্ধান চালানোর পর জোটটি এ তথ্য দিয়েছে। কালো তালিকাভুক্ত দেশগুলোর মধ্যে রয়েছে দক্ষিণ কোরিয়া, বার্বাডোজ, সেইন্ট লুসিয়া, বাহরাইন, পানামা এবং সংযুক্ত আরব আমিরাত।

ইইউ বলছে, কালো তালিকাভুক্ত দেশগুলো ইইউ এর মান অনুযায়ী তাদের কর নীতি মানতে ব্যর্থ হয়েছে। অন্যদিকে পর্যবেক্ষণে থাকা ৪৭টি দেশ তাদের কর নীতি পরিবর্তনে প্রতিশ্রুতি দিয়েছে।

পর্যবেক্ষণে থাকা কিছু দেশ ও অঞ্চলের সঙ্গে যুক্তরাজ্যের সম্পৃক্তরা রয়েছে। এর মধ্যে রয়েছে হংকং, জার্সি, বার্মুডা এবং কেম্যান আইল্যান্ডস। এছাড়া রয়েছে সুইজারল্যান্ড ও তুরস্ক। গত বছরের এপ্রিলে পানামা পেপার্স নামে গোপন নথি ফাঁস করে পানামার একটি আইনি ফার্ম মোসাক ফনসেকা।

ওই নথিতে কয়েকশ ধনী ও ক্ষমতাশালী ব্যক্তির কর ফাঁকির তথ্য বেরিয়ে আসে।

তারা কিভাবে কর ফাঁকি দিয়ে অফশোর হিসাবের মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী টাকার পাহাড় গড়েছেন, তা নথিতে তুলে ধরা হয়। এ নিয়ে বিশ্বব্যাপী ব্যাপক সমালোচনাও হয়।

পানামা পেপার্সে নাম ওঠার পর আইসল্যান্ডের প্রধানমন্ত্রীর পদত্যাগ করার ঘটনা অন্যতম দৃষ্টান্ত। গোপন ওই নথি ফাঁস হওয়ার পর ১০ মাস অনুসন্ধান চালিয়ে ইইউ এ তালিকা প্রকাশ করলো। ইইউ কর কমিশনার পিয়ারে মস্কোভিসি বলেন, কালো তালিকাভুক্ত দেশগুলো এর মাধ্যমে তাদের কর নীতিতে উন্নয়ন ঘটাবে।