খেলা-ধুলা

যে কারণে সব ধরণের ক্রিকেট থেকে ১ বছরের জন্য নিষিদ্ধ হলেন মোহাম্মদ শাহজাদ!

আফগানিস্তানের ক্রিকেটে যখন উত্থানের স্বর্ণযুগ চলছে তখন মাদক গ্রহণের লোভটা সামলাতে পারলেন না মারকুটে উইকেটকিপার ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ শাহজাদ। এই মাদক গ্রহণই কাল হলো তার জন্য।
ডোপ টেস্টে তিনি পজেটিভ প্রমাণিত হওয়ায় এবং আইসিসির এন্টি ডোপিং কোডের অনুচ্ছেদ ২.১ ভঙ্গের দায়ে সব ধরণের ক্রিকেট থেকে ১ বছরের জন্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে শাহজাদকে।

চলতি বছরের শুরুতেই ডোপ গ্রহণের দায়ে অভিযুক্ত হন শাহজাদ। আইসিসির নিয়মিত পরীক্ষার অংশ হিসেবে সংযুক্ত আরব আমিরাতের দুবাইয়ে চলতি বছরের ১৭ জানুয়ারিতে মূত্রের নমুনা দিয়েছিলেন শাহজাদ। মূত্র নমুনা পরীক্ষার পর তাতে নিষিদ্ধ ‘ক্লেনবিউটেরল’-এর উপস্থিতি পাওয়া যায়। তারপর জানুয়ারি থেকেই তার ওপর সাময়িক নিষেধাজ্ঞা জারি করে আইসিসি।

অবশ্য তখন নিজের ‘ভুল’ স্বীকার করে শাহজাদ আইসিসির মাদক বিরোধী সংস্থাকে বলেছিলেন, তিনি আসলে শক্তিবর্ধক কোনো ড্রাগ নেননি। শরীরের ওজন কমানোর জন্য তিনি ‘হাইড্রোক্সিকাট’-নামের সাপ্লিমেন্ট নিয়েছিলেন, যাতে নিষিদ্ধ ‘ক্লিনবিউটেরল’ উপাদান হিসেবে ছিল। কিন্তু আইসিসির পরীক্ষায় শাহজাদের এই আত্মপক্ষ সমর্থন ধোপে টিকেনি। একইসঙ্গে তাকে মাদকের বিরুদ্ধে আইসিসির কঠোর অবস্থান বিষয়ে সতর্ক করা হয়েছে।