খেলাধুলা

যে কারণে মরগানকে আইসিসির নিষেধাজ্ঞা

ফাইল ছবি

স্পোর্টস ডেস্ক : পাকিস্তানের বিপক্ষে ব্রিস্টলে তৃতীয় ওয়ানডেতে স্লো-ওভার রেটের কারণে এক ম্যাচ নিষেধাজ্ঞা পেয়েছেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক ইয়ন মরগান। সেই সাথে জরিমানাও করা হয়েছে মরগানকে। দলের অধিনায়কের পাশাপাশি জরিমানা করা হয়েছে বাকি সদস্যদেরও।

ব্রিস্টলে আগে বোলিং করেছিলো ইংল্যান্ড। বোলিংয়ে খুব একটা ভালো করতে পারেনি বোলাররা। ইংল্যান্ড বোলারদের বেশ ভুগিয়েছেন পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানরা। ব্রিস্টলে চার-ছয়ের বন্যা বয়ে যাচ্ছিলো। আর সেটির কারণেই কিনা এক ম্যাচ নিষেধাজ্ঞার মুখোমুখি হতে হয়েছে ইংল্যান্ড দলের অধিনায়ক মরগানকে।

মূলত নির্ধারিত সময়ের মধ্যে বোলিং শেষ করতে পারেনি ইংল্যান্ড। আইসিসির বেঁধে দেওয়া সময়ের চেয়ে ইনিংস শেষ করতে বেশি সময় লেগেছে ইংল্যান্ডের। যার কারণে নিষিদ্ধ হয়েছেন মরগান। নিষেধাজ্ঞার পাশাপাশি স্লো-ওভার রেটের কারণে ম্যাচ ফির ৪০ শতাংশ জরিমানাও গুণতে হয়েছে মরগানকে।

অন্যদিকে মরগ্যান নিষেধাজ্ঞা থেকে বেঁচে যেতে পারতেন যদি না আইসিসি পাকিস্তানের ব্যাটসম্যানদের বাউন্ডারি হাঁকানোর সময় হিসাব না করে। এর আগেও স্লো-ওভার রেটের কবলে পড়েছিলেন ইয়ন মরগ্যান। এই বছরের শুরুতে উইন্ডিজের বিপক্ষে ওয়ানডেতে এটির কবলে পড়েছিলেন এই ইংলিশ অধিনায়ক। এক বছরের মধ্যে দুইবার একই ঘটনা ঘটাতে নিষিদ্ধ হয়েছেন তিনি।

এইদিকে মরগান চতুর্থ ওয়ানডেতে নিষিদ্ধ হলেও সেটি কোন প্রভাব ফেলবে না আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপে। আইসিসির নিয়ম অনুযায়ী নিষেধাজ্ঞা, ডিমেরিট পয়েন্ট এগুলো বৈশ্বিক টুর্নামেন্টে গণনা কয়া হয় না।

এইদিকে পাঁচ ম্যাচ ওয়ানডে সিরিজের তৃতীয় ওয়ানডেতেও পাকিস্তানকে হারিয়েছে ইংল্যান্ড। পাকিস্তানের দেওয়া ৩৫৯ রানের টার্গেট তাড়া করেছে ৪ উইকেট হাতে রেখেই। মরগানকে জরিমানার পাশাপাশি তার বাকি সতীর্থদেরও ম্যাচ ফির ২০ শতাংশ জরিমানা করা হয়েছে।

জুমবাংলানিউজ/এসএস