বিনোদন

বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহ’কে যেভাবে হত্যা করা হয়েছে!

বাংলা চলচ্চিত্রের জনপ্রিয় নায়ক সালমান শাহ মৃত্যু কীভাবে হলো, তা নিয়ে বিগত ২১ বছরেও ঘোর কাটছে না। ১৯৯৬ সালের ৬ সেপ্টেম্বর ঢাকার নিউ ইস্কাটনের নিজ বাসা থেকে সালমানের লাশ উদ্ধারের ঘটনা নিয়ে এখন পর্যন্ত কম জল ঘোলা হয়নি। তবুও পরিষ্কার হচ্ছে না প্রয়াত এই অভিনেতার মৃত্যুর রহস্য।

১১/বি নিউ ইস্কাটনের বাসার নিজ কক্ষে ফ্যানের মধ্যে ঝুলন্ত মরদেহ পাওয়া যায় সালমান শাহ’র। সেদিন সকাল ৭টার দিকে সালমানের সঙ্গে দেখা করতে তার বাবা কমর উদ্দিন চৌধুরী সেখানে যান। কিন্তু ছেলের দেখা করতে না পেরেই ফিরে আসতে হয়েছে তাকে। এমনটাই সংবাদমাধ্যমকে জানিয়েছেন সালমান শাহ’র মা নীলা চৌধুরী।

শুরুতেই সেদিন সালমানের বাবাকে বাসায় ঢুকতে বাধা দেন দারোয়ান জানিয়ে নীলা চৌধুরী বলেন, ‘বলেছে স্যার এখনতো উপরে যেতে পারবেন না। কিছু প্রবলেম আছে। আগে ম্যাডামকে (সালমান শাহ’র স্ত্রীকে) জিজ্ঞেস করতে হবে। এক পর্যায়ে উনি (সালমান শাহ’র বাবা) জোর করে উপরে গেছেন। কলিং বেল দেবার পর দরজা খুলে সামিরা (সালমান শাহ’র স্ত্রী)’।

তিনি আরও বলেন, ‘উনি (সালমান শাহ’র বাবা) সামিরাকে বললেন ইমনের (সালমান শাহ’র ডাক নাম) সাথে কাজ আছে, ইনকাম ট্যাক্সের সই করাতে হবে। ওকে ডাকো। তখন সামিরা বলল, আব্বা ও তো ঘুমে। তখন উনি বললেন, ঠিক আছে আমি বেডরুমে গিয়ে সই করিয়ে আনি। কিন্তু যেতে দেয় নাই। আমার হাজব্যান্ড প্রায় ঘণ্টা দেড়েক বসে ছিল ওখানে।’

এরপর বেলা ১১টার দিকে তাকে টেলিফোন করে জানানো হয়, সালমান শাহকে দেখতে হলে তখনই যেতে হবে। এরপর দ্রুত তিনি ছুটে গিয়ে সালমানকে বিছানায় দেখতে পান। নীলা চৌধুরী বলেন, ‘খাটের মধ্যে যেদিকে মাথা দেবার কথা সেদিকে পা। আর যেদিকে পা দেবার কথা সেদিকে মাথা। পাশেই সামিরার (সালমান শাহ’র স্ত্রী) এক আত্মীয়ের একটি পার্লার ছিল। সে পার্লারের কিছু মেয়ে ইমনের হাতে-পায়ে সর্ষের তেল দিচ্ছে। আমি তো ভাবছি ফিট হয়ে গেছে।’

‘আমি দেখলাম আমার ছেলের হাতে পায়ের নখগুলো নীল। তখন আমি আমার হাজব্যান্ডকে বলেছি, আমার ছেলে তো মরে যাচ্ছে,’ বলেন সালমানের মা। এরপর সালমান শাহকে হলি ফ্যামিলি হাসপাতালে নেওয়া কর্তব্যরত চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। পরে এ ঘটনায় সালমান শাহ’র বাবা কমর উদ্দিন আহমেদ চৌধুরী একটি অপমৃত্যু মামলা দায়ের করেন।

পরে ১৯৯৭ সালের ১৯ জুলাই সালমানের বাবার বাসায় রিজভী আহমেদ ওরফে ফরহাদ নামের এক যুবক মিথ্যা পরিচয়ে ঢুকতে চেষ্টা করলে তাকে ক্যান্টনমেন্ট থানা পুলিশের কাছে সোপর্দ করে আরও একটি মামলা করা হয়।

ওই মামলায় রিজভীকে পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদ করা হলে সে সালমান শাহ হত্যার কথা স্বীকার করে। সালমান শাহ’কে কিভাবে হত্যা করা হয়েছে দেখুন ভিডিওতে। এখানে ক্লিক করে ভিডিওটি দেখুন।

Advertisements