গাজীপুর ঢাকা বিভাগীয় সংবাদ

যশোরে পাচারকালে উদ্ধার হওয়া বাঘ-সিংহের চার বাচ্চা গাজীপুরের সাফারি পার্কে

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর: যশোরে পাচারকালে সোমবার উদ্ধার হওয়া সিংহের দুইটি ও চিতা বাঘের দুইটি শাবক গাজীপুরের বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের পাঠানো হয়েছে। মঙ্গলবার ভোর ৪টার দিকে ওই শাবকগুলো পার্কে পৌঁছে।

এ নিয়ে সাফারি পার্কে সিংহের সংখ্যা হলো- ২১, রয়েল বেঙ্গল ১১টিসহ মোট বাঘের (চিতা বাঘের) সংখ্যা ২টি। তবে চিতা বাঘ এ পার্কে এ দুইটি প্রথম।

সাফারি পার্কের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. মোতালেব হোসেন জানান, যশোরের চাঁচড়া চেক পোস্টে একটি প্রাডো গাড়িযোগে পাচারকালে পুলিশ দুইটি কাঠের বাক্সের মধ্যে লুকিয়ে রাখা প্রাণিগুলো উদ্ধার করে। পরে থানায় মামলা দায়েরর পর আদালতের মাধ্যমে শাবকগুলোকে সোমবার বিকেলে খুলনা বন্যপ্রাণী ব্যবস্থাপনা ও প্রকৃতি সংরক্ষণ বিভাগে হস্তান্তর করা হয়। তারা রাতেই বাচ্চাগুলো বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব সাফারি পার্কের উদ্দেশ্যে পাঠিয়ে দেয়।

পরে মঙ্গলবার ভোর সোয়া ৪টার দিকে তা সাফারি পার্কে পৌঁছে। এর মধ্যে দুইটি সিংহের বাচ্চা এবং অপর দুইটি চিতা বাঘের বাচ্চা। সিংহের বাচ্চা দুটির বয়স আড়াই থেকে তিন মাস এবং চিতা বাঘের বাচ্চা দুটির বয়স দেড়মাস হবে বলে ধারণা করছেন তারা। ফিডারের সাহায্যে শাবকগুলোকে দুধ খাওয়ানো হচ্ছে এবং পার্কের দুইটি কক্ষে নিবিড় পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

এদিকে যশোরের চাঁচড়া ফাঁড়ির ইনচার্জ এসআই সৈয়দ মো. বায়েজিদ সাংবাদিকদের বলেন, পাচারের সময় গাড়ি থেকে আটক আসামিদের প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়। এ সময় তারা জানান, ঢাকার উত্তরার ফায়েদাবাদ এলাকার জসিমউদ্দিনের দেয়া শাবকগুলোকে যশোরের শার্শা উপজেলার সামটা গ্রামের জনৈক ইদ্রিস আলীর কাছে পৌঁছে দিতে যাচ্ছিলেন তারা। পরে চাঁচড়া চেক পোস্টে গিয়ে ধরা পড়েন। তাদের আরও জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সোমবার আদালতে পাঁচদিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়েছে।