খেলাধুলা

দুর্দান্ত নবি ম্লান বিধ্বংসী পিটারসেনে

দুই ম্যাচ আগেই ব্যাট-বলে দুর্দান্ত পারফর্ম দেখিয়ে মেলবোর্ন রেনেগেডসকে জিতিয়েছিলেন মোহাম্মদ নবি। বিগব্যাশে আজকের ম্যাচেও বল হাতে দারুণ ঘুর্ণি ঝলক দেখিয়েছেন নবি। তিনটি উইকেটের পাশাপাশি ব্যাট হাতেও রান পেয়েছেন। আফগান এই অলরাউন্ডারের ঝলমলে পারফর্মের পরেও জিততে পারেনি মেলবোর্ন রিনেগেডস। কারণটা কেভিন পিটারসেনের বিধ্বংসী এক ইনিংস।

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অনেক আগেই বিদায় নিয়েছেন দক্ষিণ আফ্রিকায় জন্ম নেওয়া ইংল্যান্ডের এই সাবেক অধিনায়ক। কদিন আগে ঘোষণা দিয়েছেন চলতি বিগ ব্যাশ শেষে তাকে আর দেখা যাবে না প্রতিযোগিতামূলক কোনো ক্রিকেটে। বিদায় লগ্নে মেলবোর্ন স্টারসের হয়ে ব্যাট হাতে সমর্থকদের যেন পূর্ণ বিনোদনই দিয়েছেন কেপি।

তিন নম্বরে ব্যাটিং করতে নেমেছিলেন মেলবোর্ন স্টারস ইনিংসের প্রথম ওভারেই। আউট হয়েছেন ১৫ নম্বর ওভারের তৃতীয় বলে গিয়ে। মাঝের সময়টাতে মোহাম্মদ নবি ছাড়া মেলবোর্ন রেনেগেডসের সব বোলারদেরই কাঁদিয়েছেন পিটারসেন। কেন রিচার্ডসন, ডিজে ব্রাভোদের পেস বোলিংকে যেভাবে গ্যলারিতে আছড়ে ফেলছিলেন কেপি দেখে মনে হচ্ছিল, এখনই ব্যাট-প্যাড গুটিয়ে রাখার সিদ্ধান্ত না নিলেই পারতেন!

কেপি তার ফিফটি করেছেন মাত্র ২৮ বলে। শেষ পর্যন্ত ৪৬ বল খেলে ৪টি চার ও ৫টি ছক্কার সাহায্যে ৭৪ রান করে সীমানায় ক্যাচ দিয়ে আউট হন। কেপি ঝড়ে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৪ উইকেট হারিয়ে ১৬৭ রানের বড় সংগ্রহ পায় মেলবোর্ন স্টারস। কেপির সামনে মেলবোর্ন রেনেগেডসের অন্য বোলারদের নাকানি-চুবানি খাওয়ার দিনে দারুণ সফল ছিলেন অবশ্য মোহাম্মদ নবি। ৪ ওভার বোলিং করে মাত্র ১৫ রান দিয়ে ২ উইকেট তুলে নেন তিনি।

পরে ব্যাট করতে নেমে আফগান অলরাউন্ডার ১৭ বলে ৩ চারে করেছেন ২৩ রান। মেলবোর্ন রেনেগেডসের পক্ষে দ্বিতীয় সর্বোচ্চ সংগ্রহ এটা। ১৮ বলে সর্বোচ্চ ২৬ করেছেন ডিজে ব্রাভো। বোঝাই যাচ্ছে দিনটা ভালো যায়নি রেনেগেডস ব্যাটসম্যানদের। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৯ উইকেট হারিয়ে ১৪৪ রান তুলতে পেরেছে রেনেগেডস। যাতে ২৩ রানের জয় পেয়েছে মেলবোর্ন স্টারস। ছয় ম্যাচ খেলা স্টারসের এটি প্রথম জয়। ম্যাচ সেরার পুরস্কারটা অনুমিতভাবে পিটারসেনের হাতেই উঠেছে।

জুমবাংলানিউজ/ জিএলজি