খেলা-ধুলা

মাত্র ২৪ রান তুলতেই ৭ উইকেট হারালো পাকিস্তান!

ব্রিসবেন টেস্টে চরম লজ্জায় পাকিস্তান। এতে ৩৫ বছরের পুরনো এক লজ্জায় ডুবলো তারা। গতকাল ব্যাট হাতে বিরল ধসে মাত্র ২৪ রানে সাত উইকেট খোয়ায় পাকিস্তান। তাদের টেস্ট ইতিহাসে এটি সবচেয়ে কম রানে সাত উইকেট খোয়ানোর রেকর্ড। তাদের লজ্জার এমন আগের রেকর্ডটি ৩৫ বছরের পুরনো।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে গতকাল দলীয় মাত্র ৬৭ রানে আট উইকেট খোয়ায় সফরকারীরা। আর দিনের খেলা শেষ করে ৯৭/৮ সংগ্রহ নিয়ে। বল হাতে আট উইকেট ভাগাভাগি করেন অজি পেসাররা। মিচেল স্টার্ক ও জশ হ্যাজেলউড নেন সমান তিন উইকেট। এক উইকেট পান জ্যাকসন বার্ড। ব্রিসবেনের গ্যাবা মাঠে দিবারাত্রির টেস্টে দ্বিতীয় দিনে পাকিস্তান প্রথম উইকেট খোয়ায় ৬ রানে। তবে দ্বিতীয় উইকেটে ইনিংস সামাল দিতে চেষ্টা করেন ওপেনার সামি আসলাম ও ওয়ানডাউন ব্যাটসম্যান বাবর আজম।

এতে এক সময় পাকিস্তানের সংগ্রহ পৌঁছে ৪৩/১-এ। কিন্তু পরের ২৪ রানে সাত উইকেট খোয়ায় পাকিস্তান। নিজেদের এমন আগের লজ্জাটিও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে। ১৯৮১-৮২ মৌসুমে অস্ট্রেলিয়া সফরে ওয়াকা গ্রাউন্ডে ২৫ রানে সাত উইকেট খোয়ায় পাকিস্তান। আগের দিনের ২৮৮/৩ সংগ্রহ নিয়ে গতকাল অস্ট্রেলিয়ার প্রথম ইনিংসে থামে ৪২৯ রানে। ১৪১ রান যোগ করে বাকি ৭ উইকেট হারায় তারা।

ক্যারিয়ারের দ্বিতীয় টেস্টেই সেঞ্চুরির দেখা পেলেন পিটার হ্যান্ডসকম্ব। এরপর আর কেউ দাঁড়াতে পারেনি উইকেটে। ৩৮০ রানের মাথায় অস্ট্রেলিয়া নবম উইকেট হারায়। কিন্তু এরপর শেষ উইকেটে পাকিস্তানের ভোগান্তি বাড়ান নাথান লায়ন ও জ্যাকসন বার্ড। জুটিতে তারা যোগ করেন ৪৯ রান। লায়ন ২৯ রানে ফিরলেও বার্ড ১৯ রানে অপরাজিত থাকেন।

উল্টোরথে ইউনুস গতকাল ব্যক্তিগত ৫ রানে উইকেট দেন ওপেনার আজহার আলী। আর চার নম্বরে ব্যাট হাতে ‘ডাক’ মারেন অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান ইউনুস খান। ব্যাট হাতে ভোগান্তি জারি রয়েছে টেস্টে পাকিস্তানের হাতে সর্বাধিক ৩৩ সেঞ্চুরির মালিক ইউনুস খানের। টেস্টে শেষ ৬ ইনিংসে ইউনুস খানের সাকুল্যে সংগ্রহ ১৬ রান। এতে তার সংগ্রহ ০, ২, ১. ২, ১১ ও ০। গতকাল ব্যাট হাতে সুবিধা করতে পারেননি পাকিস্তান অধিনায়ক মিসবাহ-উল হকও। ব্যক্তিগত ৪ রানে উইকেট দেন মিসবাহ। আর দিন শেষে ইনিংসের ৪৩ ওভারে পাকিস্তানের সংগ্রহ দাঁড়ায় ৯৭/৮-এ।

ব্যক্তিগত এক অঙ্কের রানে সাজঘরে ফেরেন পাকিস্তানের ছয় ব্যাটসম্যান। গতকাল পাকিস্তানের বল হাতে পেসার মোহাম্মদ আমির ও ওয়াহাব রিয়াজ নেন চারটি করে উইকেট। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে সফরকারী কোনো দলের দুই বোলারের চার উইকেটের ঘটনা দেখা গেল ছয় বছরে মাত্র দ্বিতীয়বার। এমন আগের ঘটনাটি দেখা যায় গতমাসে। অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে হোবার্ট টেস্টের প্রথম ইনিংসে চারটি করে উইকেট নেন প্রোটিয়া পেসার কাইল অ্যাবট ও কাগিসো রাবাদা। নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে মাঠে ফেরার পর আমিরের এটি সেরা বোলিং ফিগার।
সংক্ষিপ্ত স্কোর (২য় দিন)

টস: অস্ট্রেলিয়া, ব্যাটিং
অস্ট্রেলিয়া ১ম ইনিংস: ৪২৯ (স্মিথ ১৩০, হ্যান্ডসকম্ব ১০৫, রেনশ’ ৭১, আমির ৪/৯৭, ওয়াহাব ৪/৮৯, ইয়াসির শাহ ২/১২৯)।
পাকিস্তান ১ম ইনিংস: ১৪২  (সরফরাজ আহমেদ ৫৯, সামি ২২, বাবর ১৯, হ্যাজেলউড ৩/২২, স্টার্ক ৩/৬৩, বার্ড ৩/২৩)।

অস্ট্রেলিয়া ২য়  ইনিংস : ৩৯ ওভারে ৫/২০২

ভিডিও নিউজ : মার্কিন দূতাবাসের কর্মকর্তাদের কন্ঠে বাংলা গান (ভিডিও)

 

Add Comment

Click here to post a comment