বরিশাল বিভাগীয় সংবাদ

মাত্র ১০০ টাকা চুরির অপবাদে মুখে গামছা বেঁধে মাদ্রাসা ছাত্রীকে নির্যাতন

মাত্র ১০০ টাকা চুরির অপবাদ দিয়ে মাদ্রাসা ছাত্রী কামরুন নাহার সুমাইয়ার (৮) মুখে গামছা বেঁধে অমানুষিক নির্যাতন করেছে গৌরনদী উপজেলা সদরের খাদিজাতুল কোবরা (রা.) মহিলা কওমি মাদ্রাসার তিন শিক্ষিকা। গতকাল নির্যাতিতা আহত ছাত্রীকে মাদ্রাসার আবাসিক হল থেকে উদ্ধার করে তার মা তাকে গৌরনদী স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করেন।

ছাত্রীর মা উপজেলার পশ্চিম শাওড়া গ্রামের সৌদি প্রবাসী মো. কামাল হোসেন বেপারীর স্ত্রী রেনু বেগম জানান, মাদ্রাসার তিন নারী শিক্ষক সুমাইয়াকে বৃহস্পতিবার রাতে অমানুষিক নির্যাতন করেছে খবর পেয়ে তিনি গতকাল সকালে মাদ্রাসার আবাসিক হল থেকে গুরুতর আহতাবস্থায় সুমাইয়াকে উদ্ধার করেন।

এ সময় মাদ্রাসা সুপার তাকে জানিয়েছেন, অপর এক ছাত্রীর ১০০ টাকা চুরির ঘটনায় সুমাইয়াকে শাসন করা হয়েছে। মাদ্রাসার প্রতিষ্ঠাতা জাহিদুল ইসলাম মুঠোফোনে বলেন, মাদ্রাসা সুপার তার স্ত্রী। টাকা চুরির ঘটনায় দুই শিক্ষিকা রোকসানা ও হাফিজা ছাত্রী সুমাইয়াকে বেত্রাঘাত করায় তাদের মাদ্রাসা থেকে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। গৌরনদী মডেল থানার ওসি মনিরুল ইসলাম বলেন, তিনি লোকমুখে ছাত্রী নির্যাতনের কথা শুনেছেন।