বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

মঙ্গলের মাটির নিচে বরফের খনি!

মঙ্গল গ্রহ নিয়ে আগ্রহের কমতি নেই বিজ্ঞানীদের। এ নিয়ে তাদের গবেষণারও শেষ নেই। এবার সেই মঙ্গল নিয়েই গুরুত্বপূর্ণ তথ্য পেয়েছেন মার্কিন মহাকাশ সংস্থা নাসার বিজ্ঞানীরা। মঙ্গল গ্রহের মাটির নিচে বরফের খনি রয়েছে বলে ধারণা তাদের। শুধু তাই নয়, গ্রহটির বিশাল একটা অংশজুড়ে রয়েছে এই বরফ। ২৬০ ফুট থেকে ৫৬০ ফুট পুরো স্তর রয়েছে বরফের, যার অর্ধেকে রয়েছে বরফ ও পাথরের মিশ্রণ।

প্রাগৈতিহাসিক যুগে কখনো তুষারপাতের ফলেই এই স্তর তৈরি হয়েছিল বলে মনে করা হচ্ছে। যে অংশে বরফ জমা রয়েছে তা বিজ্ঞানীদের নাগালের মধ্যে বলে বিজ্ঞানীরা মনে করছেন। একটা সমতল জায়গায় রয়েছে এটি। সেখানে মহাকাশযান পৌঁছানোও বেশ সুবিধাজনক।

এর আগে মঙ্গলে পাথরের স্তরে খোঁজ মিলেছিল ম্যাঙ্গানিজ অক্সাইডের। মাঙ্গানিজ অক্সাইডের অস্তিত্ব প্রমাণ করে, অতীতে লাল গ্রহের বায়ুমণ্ডলে অনেক বেশি অক্সিজেন ছিল। কারণ যথেষ্ট পরিমাণ পানি ও জারক প্রক্রিয়ার অস্তিত্ব না থাকলে এ ধরনের ম্যাঙ্গানিজের স্তর সৃষ্টি হতে পারে না।

বিকাশের একটা পর্যায়ে পৃথিবীতে ছিল প্রচুর পানি। পরে সালোকসংশ্লেষণ প্রক্রিয়ার ফলে যখন বায়ুমণ্ডলে অক্সিজেনের পরিমাণ বৃদ্ধি পায় তখনই ম্যাঙ্গানিজের স্তর তৈরি হতে শুরু করে। এ কারণেই মনে করা হচ্ছে মঙ্গলে ম্যাঙ্গানিজ তৈরি হয়েছিল অনেক বেশি অক্সিজেন থাকার কারণেই।

এই কারণেই বিজ্ঞানীদের ধারণা, এক সময়ে মঙ্গলে প্রচুর পানি ছিল। পানির মধ্যে থাকা অক্সিজেই ছড়িয়ে পড়ে মঙ্গলের আবহাওয়ামণ্ডলে। কিন্তু তখন মঙ্গলের মাধ্যাকর্ষণের শক্তি ছিল অত্যন্ত কম। মঙ্গলের চুম্বকক্ষেত্র মাহাকাশ থেকে আসা তেজস্ক্রিয় রশ্মিকে ঠেকাতে পারেনি। ফলে পানির অণু ভেঙে পরিণত হয় হাইড্রোজেন ও অক্সিজেনে।

ভিডিওঃ যতক্ষণ দেখবেন ততক্ষণ হাসবেন। চোখ দিয়ে পানি বের হয়ে যাবে

জুমবাংলানিউজ/ জিএলজি


Add Comment

Click here to post a comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.