আন্তর্জাতিক

ভেনেজুয়েলার ১৪টন স্বর্ণ ফেরত দেবে না ব্যাংক অব ইংল্যান্ড

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভেনেজুয়েলা ব্যাংক অব ইংল্যান্ডে সাড়ে পাঁচ কোটি ডলারের ১৪ টন স্বর্ণ জমা রেখে বিপাকে পড়েছে । ল্যাটিন আমেরিকার এই দেশটির বিরুদ্ধে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র যে অবরোধ জারি করেছে তাতে এ স্বর্ণ আটকে যেতে পারে এমন সন্দেহে গত দুই মাস ধরে তা ফেরত চাচ্ছে দেশটি। সূত্র উল্লেখ না করে টাইমস’এর রিপোর্টে বলা হচ্ছে ব্রিটিশ ব্যাংক কর্মকর্তারা এ স্বর্ণের সাথে মুদ্রা পাচার সংক্রান্ত কোনো ঘাপলা আছে কি না তা যাচাই বাছাইয়ের নির্দেশ দিয়েছেন। ব্যাংক অব ইংল্যান্ডের পক্ষ থেকে এও বলা হচ্ছে, ভেনেজুয়েলায় এ স্বর্ণ ফেরত গেলে প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরো তা বাজেয়াপ্ত করে ব্যক্তিগত কাজে ব্যবহার করতে পারেন।

ওয়াশিংটনের পক্ষ থেকে অবরোধের যুক্তি হিসেবে অভিযোগ তোলা হয়েছে অর্থনৈতিক সংকটের মধ্যেও ভেনেজুয়েলার শাসকরা দেশটির স্বর্ণ সম্পদ লুটপাট করতে পারে। যুক্তরাষ্ট্রের জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা জন বোল্টন গত সপ্তাহে বলেন, কিউবা ও নিকারাগুয়ার মত ভেনেজুয়েলার শাসকরা জঘন্য স্বৈরশাসকে পরিণত হয়েছে। তবে প্রেসিডেন্ট মাদুরো তার দেশের বিরুদ্ধে মার্কিন অবরোধকে অপরাধ হিসেবে অভিহিত করে বলেছেন, এর ফলে আমদানিকৃত খাদ্যপণ্য ও ওষুধের দাম বেড়ে যাচ্ছে। তিনি তার দেশের স্বর্ণ সম্পদকে অবরোধের বিরুদ্ধে কাজে লাগানোর কথাও বলেছেন। কিন্তু মার্কিন অবরোধের অন্যতম লক্ষ্যই হচ্ছে ভেনেজুয়েলার স্বর্ণ রফতানি নিষিদ্ধ করা।

বিশ্বের দ্বিতীয় স্বর্ণ মজুদকারী দেশ ভেনেজুয়েলায় ৩২টি স্বর্ণখনি ছাড়াও ৫৪টি স্বর্ণ প্রসেসিং প্লান্ট রয়েছে।

জুমবাংলানিউজ/এএসএমওআই