বিনোদন

বয়স চল্লিশ পার হলেও অনন্যা এই ৫ ভারতীয় নারী

বয়স একটি সংখ্যার হিসাব ছাড়া আর কিছুই নয়, যা এই ভারতীয় নারীরা প্রমাণ করেছেন। অভিনেত্রী থেকে শুরু করে লেখিকাও আছেন এ তালিকায়।
তাদের সবার বয়স চল্লিশ কিংবা তারও বেশি। এই বয়সে যখন অন্য সব নারী বুড়িয়ে গেছেন, তখন এই অনন্যারা প্রমাণ করেছেন, বয়স কোনো ব্যাপার নয়। তারা এখনো দারুণ উদ্যমী, গ্ল্যামারাস এবং ক্যারিয়ারকে এগিয়ে নিয়ে চলেছেন পাল্লা দিয়ে। এখানে পড়ুন এমনই ৫ নারীর কথা।

১. স্বপ্না ভবানী : তার বয়স ৪৫। তিনি এক সেলিব্রিটি হেয়ারস্টাইলিস্ট। স্বপ্না ফ্যাশন, বিনোদন, ফটোগ্রাফি এবং রিয়েলিটি টেলিভিশনেরও জনপ্রিয় তারকা। যেকোনো সিরিয়াস বিষয়ে নিজের মতামতের জানান দিতে কোনো কার্পণ্য নেই তার।

২. ঐশ্বরিয়া রায় বচ্চন : ৪৩ বছর বয়সেও বিস্ময়করভাবে গ্ল্যামার ধরে রেখেছেন। তাকে এখনো পৃথিবীর সুন্দরীতমদের একজন বলে মনে করা হয়। করণ জোহরের সর্বসাম্প্রতিক ‘অ্যায় দিল হেই মুশকিল’ ছবিতে রণবীর কাপুরের সঙ্গে প্রমাণ করেছেন, বিশের কোঠার নায়িকাদের এখনো টপকে যেতে পারেন তিনি।

৩. অরুন্ধতি রায় : এই লেখিকার পরিচয় নতুন করে বলার কিছু নেই। ‘দ্য গড অব স্মল থিংস’ উপন্যাসের জন্য বুকার প্রাইজ পেয়েছেন আরো ২০ বছর আগে। একটুও পিছিয়ে পড়েননি। তার নতুন বইটির নাম ‘দ্য মিনিস্ট্রি অব আটমোস্ট হ্যাপিনেস’। এটি আসছে আগামী বছর।

৪. টুইঙ্কল খান্না : এক সময় বলিউডের জনপ্রিয় তারকা ছিলেন তিনি। কিন্তু পরে ইন্টেরিয়র ডিজাইনার, খবরের কাগজের কলামিস্ট, চলচ্চিত্র প্রযোজক এবং লেখক বনে যান। এখন বয়স তার ৪২। সম্প্রতি তার দ্বিতীয় উপন্যাস বের করার কাজ করে চলেছেন। বইটির নাম ‘দ্য লিজেন্ড অব লক্ষ্মী প্রসাদ’। এটা ছোটগল্পের সংগ্রহ।

৫. লিলেটে দুবে : ইন্ডাস্ট্রির খ্যাতিমান তারকা তিনি। দুবে মিরা নাইরের ‘মুসুন ওয়েডিং’ ছবিতে সবার হৃদয় জয় করেন। অর্পণা সেনের ‘সোনাটা’য় শিগগিরই দেখা যাবে তাকে। এতে অভিনয় করছেন শাবানা আজমি। বয়স তার ৬৩ বছর, যা মোটেও দমিয়ে রাখতে পারেনি।

সূত্র : ম্যান্স ওয়ার্ল্ড ইন্ডিয়া

ভিডিওঃ তোমরা যারা জাকির নায়েকের বিরোধিতা করো তাদের জন্য এই ভিডিও

Add Comment

Click here to post a comment