বিনোদন

বিয়ে নিয়ে একি বললেন পপি

বিয়ে করার তেমন কোন পরিকল্পনা এ বছর নেই। বিয়ে করলেই বহুমুখী ব্যস্ততা বেড়ে যায়। চাইলেও আগের মতো অভিনয়ে সময় দেওয়া যায় না। আপাতত ক্যারিয়ার নিয়েই ব্যস্ত সময় পার করতে চাই। কথাগুলো বলেছেন ঢাকাই চলচ্চিত্রের সুন্দরী নায়িকা সাদিকা পারভিন পপি।এক সাক্ষাৎকারে তিনি এ কথাগুলো বলেন।

কেমন আছেন?

সাদিকা পারভিন পপি : ধন্যবাদ। অনেক ভালো আছি।

বর্তমানে কি নিয়ে ব্যস্ত আছেন?

সাদিকা পারভিন পপি : বাংলাদেশের চলচ্চিত্রের সুদিন ফিরতে শুরু করেছে। বর্তমানে ‘সহসী যোদ্ধা’, ‘কাস্টমস অফিসার’ নামের দুটি সিনেমার শুটিং নিয়ে একটু ব্যস্ত আছি। এছাড়া ছোট বড় বেশকিছু সিনেমার শুটিং শেষ করলাম।

সময় তো অনেক গড়িয়েছে, বিয়ে করছেন কবে?

সাদিকা পারভিন পপি : বিয়ে নিয়ে তেমন কোন পরিকল্পনা নেই। ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে আমি অনেক হ্যাপি। কোটিপতি একজন স্বামীকে নিয়ে আমার আলাদাভাবে খুশি হতে হবে এমনটা আমি ভাবি না। কোটিপতি স্বামী ছাড়া আমি অনেক হ্যাপি।

অভিনেত্রী না হলে কি হতেন?

সাদিকা পারভিন পপি : ছোট বেলায় স্বপ্ন দেখতাম সাংবাদিক হব। ক্রাইম রিপোর্টার হিসাবে কাজ করবো। বড় হয়ে স্বপ্নটা পরিবর্তন হয়। অভিনেত্রী না হলে পাইলট হতাম।

বিয়ে যখন করবেন তখন কি কোন অভিনেতাকে বিয়ে করার ইচ্ছে আছে? ঢালিউড, বলিউড অভিনেতাদের মধ্যে কাকে আপনার ভাল লাগে?

সাদিকা পারভিন পপি: সে রকম যদি চিন্তা করি তবে সালমান খানকে বেশি ভালো লাগে। তাকে বিয়ে করা যায়।আর ভালো লাগার কথা যদি বলি- চলচ্চিত্রে যারা কাজ করে তাদের সবাইকেই ভালো লাগে। তবে শাহরুখ খানের অভিনয় বেশি ভালো লাগে।

এপযর্ন্ত কতগুলো প্রেম করছেন?

সাদিকা পারভিন পপি:মিডিয়ায় কাজ করার কারণে অনেক ব্যস্ত সময় পার করতে হয়েছে। প্রেম করার সুযোগ হয়নি। প্রেম করাটা অনেক কঠিন কাজ। একটা মানুষ বহু মানুষের সঙ্গে প্রেম করতে পারে না। তবে পর্দায় অনেক প্রেম করেছি।

আপনি তো এখনও অনেক সুন্দর। লাল সাদা পোশাকে অনেক সুন্দর লাগছে আপনাকে। আপনার পছন্দের রং কি?

সাদিকা পারভিন পপি : সবচেয়ে বেশি পছন্দের লাল রং। যে কারণে লাল রং দিয়ে অধিকাংশ পোশাক তৈরি করি।

কোন ধরনের চরিত্রে অভিনয় করতে স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন?

সাদিকা পারভিন পপি : আমি ভিন্ন ধরনের চরিত্রে কাজ করতে বরাবরই আগ্রহী। আমার ক্যারিয়ারে আমি অনেক চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে অভিনয় করেছি। আর আমি সবচেয়ে বেশি কাজ করতে স্বাচ্ছন্দ্য বোধ করি নারীপ্রধান ও রাজনৈতিক প্রেক্ষাপট নিয়ে নির্মিত চরিত্রে। যখন কোন চরিত্র সামনে আসে আমি আগে সেই মানুষগুলো সম্পর্ক জানতে চেষ্টা করি। এমনকি সিনেমার বিভিন্ন চরিত্রের প্রয়োজনে বিভিন্ন স্থানে যাই।

আপনাকে যদি পতিতা চরিত্রে অভিনয় করতে বলা হয় তাহলে কি প্রতিতালয় ভিজিট করবেন?

সাদিকা পারভিন পপি : অবশ্যই করব। এ সব চরিত্র চ্যালেঞ্জিং। আর আমি চ্যালেঞ্জিং চরিত্রে কাজ করতে বেশি পছন্দ করি। এতো কোন বিব্রত হব না। কারণ প্রতিতালয়ে যারা থাকেন তারাও আমাদের সমাজের মানুষ। তাদের জীবনে অনেক সমস্যার কারণে এ পথে এসেছে। তাই আমার কোন সমস্যা হবে না তাদের কাছে যেতে।

আপনার মূল্যবান সময় দেওয়া জন্য ধন্যবাদ।

সাদিকা পারভিন পপি : আপনাকেও ধন্যবাদ।

[দেশের জনপ্রিয় মডেল ও অভিনেত্রী সাদিকা পারভিন পপি। ১৯৯৭ সালে মনতাজুর রহমান আকবর পরিচালিত ‘কুলি’ সিনেমাতে অভিনয়ের মধ্য দিয়ে চলচ্চিত্রে অভিষেক হয় তাঁর। এ পর্যন্ত অসংখ্য চলচ্চিত্রে অভিনয় করে সুনাম অর্জন করেছেন তিনি। ‘মেঘের কোলে রোদ’, ‘কি যাদু করিলা’ ও ‘গঙ্গাযাত্রা’ সিনেমাতে অভিনয় করে পেয়েছেন জাতীয় চলচ্চিত্র পুরস্কার।]-একুশে টেলিভিশন

জুমবাংলানিউজ/ জিএলজি