বিনোদন

বিয়ের পর ২ বছরও টেকেনি এই ৬ বলিউড অভিনেত্রীর সংসার

ফাইল ছবি

বিনোদন ডেস্ক: প্রথমে প্রেম। এরপর তড়িঘড়ি করে বিয়ে। তার থেকেও তাড়াতাড়ি বিচ্ছেদ। এ যেন এক সময়ে বলি সেলেবদের প্রতিদিনের কাহিনী হয়ে উঠেছিল। এমনই কিছু তারকাদের বিয়ের কাহিনিতে নজর থাকবে যাদের বিচ্ছেদও হয়েছিল তাড়াতাড়ি।

নেপালি ব্যবসায়ী সম্রাট দহলকে বিয়ে করেছিলেন মনীষা। ২০১২ সালে মাত্র দু’বছরের মধ্যেই ডিভোর্স হয়ে যায় মনীষা আর সম্রাটের। এমনকি ফেসবুকে মনীষা লেখেন, ‘আমার স্বামীর থেকে বড় শত্রু আর আমার কেউ নেই।’

বিয়ের কথা কখনও জনসমক্ষে আনেননি মল্লিকা শেরাওয়াত। তবে ইন্ডাস্ট্রিতে পা রাখার আগেই ২০০০ সালে বিমানচালক কর্ণ সিংহ গিলকে বিয়ে করেছিলেন মল্লিকা। সিনেমায় নিজের কেরিয়ার গড়বেন বলে পরিবারকে সময় দিতে পারবেন না। এই কারণ দেখিয়ে বিয়ের এক বছরের মধ্যেই কর্ণের সঙ্গে ডিভোর্স হয়ে যায় মল্লিকার।

বিয়ের এক বছরের মাথায় শ্রদ্ধা নিগমের সঙ্গে বিচ্ছেদ হয়ে যায় কর্ণ সিংহ গ্রোভারের। তার পরে কর্ণ বিয়ে করেন জেনিফার উইঞ্জেটকে। কিন্তু জেনিফারের সঙ্গেও দু’বছর পরে ডিভোর্স হয়ে যায় কর্ণের। পরে বিপাশা বসুকে বিয়ে করেন কর্ণ।

শ্বেতা রোহিরা নামের একজনকে বিয়ে করেছিলেন অভিনেতা পুলকিত সম্রাট। কিন্তু সে বিয়ে টেকেনি বেশিদিন। এক বছরের মাথায় ডিভোর্স হয়ে যায় দু’জনের। আর তার পরেই রটনা রটে ইয়ামি গৌতমের সঙ্গে ডেট করছেন পুলকিত।

বিগ বস হাউসের ভিতরেই টেলি তারকা সারা খান আর আলি মার্চেন্ট বিয়ে করেছিলেন। মাত্র দু’মাস টিকেছিল সেই বিয়ে। আর আলি বলেছিলেন, ‘এটা আমার জীবনের একটা ভুল পদক্ষেপ।’

অমিতাভ আর রেখার সম্পর্কের কথা বলিউডে কান পাতলেই শোনা যায়। তবে মুকেশ অগ্রবাল নামে দিল্লির এক ব্যবসায়ীর সঙ্গে বিয়ে করেন রেখা। কিন্তু সে বিয়ে টেকেনি বেশিদিন। বিয়ের এক বছরের মাথায় আত্মঘাতী হন মুকেশ।

জুমবাংলা/এসএম/