গাজীপুর জাতীয় ঢাকা বিভাগীয় সংবাদ

বিশ্ব ইজতেমা প্রথম পর্বের দ্বিতীয় দিন

নিজস্ব প্রতিবেদক, গাজীপুর : ইবাদত, বন্দেগি ও বয়ানের মধ্য দিয়ে প্রথম দিন অতিবাহিত করেছেন টঙ্গীর তুরাগ তীরের বিশ্ব ইজতেমায় প্রথম পর্বে অংশ নেওয়া দেশ-বিদেশের লাখো মুসল্লি।

শনিবার এবারের ৫৩তম বিশ্ব ইজতেমার দ্বিতীয় দিন। বাদ ফজর বাংলাদেশের মুরব্বি মাওলানা নূরুল রহমানের বয়ানের মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে দ্বিতীয় দিনের কার্যক্রম।

কনকনে শীত উপেক্ষা করে মুসল্লিরা নিজ নিজ খিত্তায় অবস্থান নিয়ে বিশ্ব ইজতেমার শীর্ষ মুরব্বিদের বয়ান শুনছেন। এবারের বিশ্ব ইজতেমার প্রথম পর্বে বিদেশি মুসল্লিদের পাশাপাশি ঢাকাসহ দেশের ১৪ জেলার মুসল্লিরা অংশ নিচ্ছেন। দেশের মুসল্লিদের জন্য ইজতেমা ময়দান ২৮টি খিত্তায় ভাগ করা হয়েছে।

ইজতেমা আয়োজক মুরব্বি সূত্রে জানা গেছে, তিন দিনব্যাপী বিশ্ব ইজতেমায় তাবলিগের মারকাজের শুরা সদস্য ও বুজর্গরা বয়ান পেশ করবেন। দেশ-বিদেশের বিভিন্ন বুজর্গ-আলেমগণ ঈমান, আমল, আখলাক, কালেমা ও দ্বীনের পথে মেহনত সম্পর্কে কোরআন-হাদিসের আলোকে বয়ান করেন। বিশ্ব ইজতেমায় অংশ নেওয়া বিভিন্ন ভাষাভাষী মুসল্লিদের জন্য বয়ান তাৎক্ষণিকভাবে বাংলা, ইংরেজি, আরবি, তামিল, মালয়, তুর্কি ও ফরাসিসহ স্ব স্ব ভাষায় অনুবাদ করা হয়। সমবেত মুসল্লিদের উদ্দেশে প্রতিদিন ফজরের নামাজের পর থেকে এশা নামাজের আগ পর্যন্ত এ বয়ান অনুষ্ঠিত হয়।

সুষ্ঠুভাবে বিশ্ব ইজতেমা সম্পন্ন করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী নিয়েছে ব্যাপক নিরাপত্ত ব্যবস্থা। ওয়াচ টাওয়ার, সিসি ক্যামেরা এবং পুলিশ ও র‌্যাবের কন্ট্রেল রুম থেকে ইজতেমা মাঠের সার্বিক নিরাপত্তা মনিটরিং করা হচ্ছে। ইজতেমা মাঠের বাইরে, অলিতে-গলিতে পোশাকে-সাদা পোশাকে পুলিশ-র‌্যাব সদস্য অবস্থান নিয়ে বিশ্ব ইজতেমায় আগত মুসল্লিদের নিরাপত্তা বিধান করছেন। এ ছাড়া ময়দানের প্রতিটি খিত্তায় এবং বিদেশি নিবাস এলাকায় রয়েছে পর্যাপ্ত আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্য।

আগামীকাল রোববার আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে প্রথম পর্ব। চার দিন পর ১৯ জানুয়ারি শুরু হবে দ্বিতীয় পর্ব। একইভাবে ২১ জানুয়ারি আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হবে দ্বিতীয় পর্ব তথা এবারের বিশ্ব ইজতেমা।