আন্তর্জাতিক

বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার ঘটনায় বিজেপি প্রধানের বিরুদ্ধে মামলা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক : ভারতের বিদ্যাসাগর কলেজে তাণ্ডবের ঘটনায় বিজেপি’র সভাপতি অমিত শাহের বিরুদ্ধে এজাহার দায়ের করেছে কলকাতা পুলিশ। সেইসঙ্গে গতকাল রাত থেকে এখনও পর্যন্ত মোট ৫৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

কলকাতা পুলিশ জানিয়েছে, আরও বেশ কয়েক জনের খোঁজে তল্লাশি চলছে।

এদিকে এফআইআর করা নিয়ে পাল্টা তোপ দেখিয়েছেন অমিত। সাংবাদিক বৈঠক করে অমিত বলেছেন, ‘আমার বিরুদ্ধে এফআইআর হয়েছে। আমরা ভয় পাই না। মমতা চাইলে নিরপেক্ষ সংস্থাকে দিয়ে এই ঘটনার তদন্ত করতে পারেন।’

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনের সংঘর্ষ এবং বিদ্যাসাগর কলেজের তাণ্ডবের ঘটনায় জোড়াসাঁকো থানা এবং আমহার্স্ট স্ট্রিট থানায় অভিযোগ দায়ের করেন সেখানকার শিক্ষার্থীরা।

অভিযোগে বলা হয়, বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের নেতৃত্বেই এই হামলা চালানো হয়েছে। একটি এফআইআর-ও দায়ের করা হয়েছে।

পুলিশ সূত্রে খবর, ঘটনার তদন্তও শুরু করে দিয়েছে আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার পুলিশ। সেই এফআইআরে অমিত শাহের নাম আছে বলে জানা যাচ্ছে পুলিশ সূত্রে।

বিদ্যাসাগর কলেজের তাণ্ডবের ঘটনায় তদন্ত শুরু হয়ে গিয়েছে, গতকাল রাতেই জানিয়েছিলেন পুলিশ কমিশনার রাজেশ কুমার।

একই সঙ্গে পুলিশের তরফে জানানো হয়েছিল, গ্রেফতার করা হয়েছে ১৬ জন হাঙ্গামাকারীকে। এখনও পর্যন্ত সেই গ্রেফতারির সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৫৮।

গতকাল বিজেপি সভাপতি অমিত শাহের রোড শো ঘিরে সংঘর্ষের মধ্যেই বিদ্যাসাগর কলেজে ঢুকে তাণ্ডব চালানোর অভিযোগ ওঠে বিজেপি কর্মী-সমর্থকদের বিরুদ্ধে।

আরো পড়ুন: শিশু ধর্ষণের প্রতিবাদে উত্তাল কাশ্মীর

জানা যায়, গতকালের সংঘর্ষে শুধু বিদ্যাসাগরের মূর্তিই নয়, কলেজের গেট, আসবাব ভেঙে দেওয়ার পাশাপাশি পুরো এলাকা তছনছ করার জন্যও অভিযুক্ত বিজেপি কর্মী-সমর্থকেরা।

জুমবাংলানিউজ/এএসএমওআই