slider জাতীয় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

বাংলােদেশের স্যাটেলাইটকে ব্যবসা সফল করাতে অন্য যে ২টি দেশেও থাকবে গ্রাউন্ড স্টেশন

নিজস্ব প্রতিবেদক: দুই হাজার ৭৬৬ কোটি টাকার বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটটিকে ব্যবসা সফল হতে সাত থেকে আট বছর সময় লাগবে। আর শুরুতেই ব্যবসায়িক সুফল পেতে আগামী ৩০ জুনের মধ্যে ইন্দোনেশিয়া ও ফিলিপাইনে বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের দুটি আলাদা গ্রাউন্ড স্টেশন করা হবে।  ইতিমধ্যে এ বিষয়ে দুটি কোম্পানির সঙ্গে চুক্তি সই করেছে বঙ্গবন্ধু স্যাটেলাইট পরিচালনার জন্য গঠিত বাংলাদেশ কমিউনিকেশন্স স্যাটেলাইট কোম্পানি।

কোম্পানির ব্যবস্থাপনা পরিচালক মো. সাইফুল ইসলাম জানিয়েছেন, বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটের ভৌগলিক অবস্থান ওই দেশ দুটির একেবারে ওপরে। সেভাবে ব্যবসায়িক পরিকল্পনাও সাজানো হচ্ছে ওই দেশ দুটিকে সামনে রেখেই।

সাইফুল ইসলাম বলেন, বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইটে মোট ৪০ ট্রান্সপন্ডার রয়েছে, এর মধ্যে অর্ধেকটা দেশের মধ্যে ব্যবহার করে বাকিটা বিদেশে বিক্রি করা হবে।

উদ্বৃত্ত ক্যাপাসিটি বিদেশে বিক্রির জন্য একটি এজেন্ট প্রতিষ্ঠান নিয়োগের কাজ শুরুর কথা জানিয়ে এই কর্মকর্তা আরও জানান, মূলত তারাই দেশের বাইরের সব ব্যবসা দেখবে। আর দেশের মধ্যে স্যাটেলাইটের ক্যাপাসিটি বিক্রির কাজ করবে স্যাটেলাইট কোম্পানি। বিদেশের বিভিন্ন স্যাটেলাইটের গুণগত মান এবং ট্রান্সপন্ডারের মূল্য সম্পর্কে খোঁজ খবরের ভিত্তিতেই মূল্য নির্ধারণ করা হবে।

বঙ্গবন্ধু-১ স্যাটেলাইট গত শুক্রবার মধ্যরাতে মহাকাশ পানে ছুটে যায়। ফ্লোরিডার স্পেসএক্স লঞ্চ প্যাড থেকে এটি সফলভাবে উৎক্ষেপণ হয়েছে। তবে এটি এখনও তার নিজের কক্ষপথ ১১৯ দশমিক ১ পূর্ব দ্রাঘিমায় পৌঁছায়নি। আগামী কয়েকদিনে সেটা পৌঁছার পর সেটির পুরোপুরি নিয়ন্ত্রণ পেতে দুই মাস লাগবে। আর বাণিজ্যিক ব্যবহারের উপযোগী হয়ে উঠতে আরও তিন মাস লাগবে।