বিনোদন

বাংলাদেশ সফর না করায় মরগানের ‘স্বস্তি’

বাংলাদেশ সফর না করা নিয়ে ফের মুখ খুললের এউইন মরগান। ওই সফর না করায় মোটেও দুঃখিত নন বলে জানালেন তিনি। তিনি তখন ঠিক কাজ করেছিলেন বলেই মনে করেন। অক্টোবরে বাংলাদেশ সফরে আসে ইংল্যান্ড ক্রিকেট দল। কিন্তু নিরাপত্তার অজুহাতে বাংলাদেশে আসেননি ওয়ানডে দলের ‘অধিনায়ক’ এউইন মরগান ও অ্যালেক্স হেলস।

ইংল্যান্ডের নিরাপত্তা পর্যবেক্ষক কর্মকর্তা বাংলাদেশে তাদের পূর্ণ নিরাপত্তার কথা বললেও মরগানের কাছে সেটা বিশ্বাসযোগ্য মনে হয়নি। ইংল্যান্ডের অনেক সাবেক খেলোয়াড় তাকে বাংলাদেশ সফরের ব্যাপারে অনুরোধ জানালেও তিনি রাখেননি। তবে তাকে ছাড়াই বাংলাদেশে আসে ইংল্যান্ড দল। জস বাটলারের নেতৃত্বে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ ২-১ ব্যবধানে জেতে তারা। আর দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজ হয় ১-১ ড্র। বাংলাদেশে খেলাকালে ইংল্যান্ডের খেলোয়াড়দের কোনো ধরনের অসুবিধা হয়নি। প্রায় প্রতিটি খেলোয়াড় বাংলাদেশের নিরাপত্তা ও আতিথেয়তার প্রশংসা করেছেন।

বাংলাদেশ সফর না করলে পরবর্তীতে মরগ্যান ঝামেলায় পড়বেন বলে অনেকেই তখন ইঙ্গিত দিয়েছিলেন। কিন্তু ইংল্যান্ড অ্যান্ড ওয়েলস ক্রিকেট বোর্ড বলেছিল, ভবিষ্যতে দল নির্বাচনের ক্ষেত্রে বাংলাদেশ সফরে যাওয়া- না যাওয়ার কোনো প্রভাব পড়বে না। নৈপুণ্যের ওপর ভিত্তি করে দল নির্বাচন করা হবে। কথা রেখেছে তারা। মরগান ও হেলসকে ভারতের বিপক্ষে শুরু হতে যাওয়া ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য দলে রেখেছে তারা। জানুয়ারির ১৫ তারিখেই ইংল্যান্ডের হয়ে ভারতের বিপক্ষে দেখা যেতে পারে তাদের। তার আগে বাংলাদেশ সফরে না যাওয়া নিয়ে ফের কথা বললেন মরগান।

‘দ্য টেলিগ্রাফ’-এর খবরে তিনি বলেন, ‘নিরাপত্তার উদ্বেগ নিয়ে আমি তখন স্বাচ্ছন্দে ছিলাম না। আমার মনে তখন অনেক প্রশ্ন ছিল। এমন দুশ্চিন্তা নিয়ে একজন অধিনায়ক ও খেলোয়াড় হিসেবে আমি কি বাংলাদেশে ভাল নৈপুণ্য দেখাতে পারতাম?’

তিনি আরো বলেন, ‘আমি সিদ্ধান্ত নেয়ার আগে বোর্ডের সঙ্গে কথা বলেছিলাম। বাংলাদেশে নিরাপত্তার বিভিন্ন দিক লক্ষ্য রাখছিলাম। কিন্তু আমার মন তখন সফর করার জন্য সায় দেয়নি। মনে হচ্ছিল- দুশ্চিন্তা নিয়ে মাঠে নৈপুণ্য দেখাতে পারবো না। প্রত্যেকের ব্যক্তিগত সিদ্ধান্ত নেয়ার অধিকার আছে। বোর্ড আমাকে সে অধিকার দিয়েছিল। আমি বাংলাদেশ সফরে যাইনি। এতে আমি দুঃখিত নই।’ ঢাকার গুলশানে হলি আর্টিজানে সন্ত্রাসী হামলা ও এর আগে অস্ট্রেলিয়া দলের বাংলাদেশ সফর স্থগিত করার বিষয়টি ফের সামনে আনলেন মরগান।
বলেন, ‘ঢাকায় সন্ত্রাসী হামলার পর প্রথম দল হিসেবে সে দেশে আমি সফর করতে চাইনি। এছাড়া ওই ঘটনার আগেও অস্ট্রেলিয়া ক্রিকেট দল বাংলাদেশ সফর স্থগিত করেছিল। আমার বাংলাদেশে না যাওয়ার এটা আরেকটি কারণ।’

তিনি বাংলাদেশ সফরে না এলেও তখন থেকে যারা তাকে সমর্থন দিয়ে গেছেন তাদেরকে মরগান ধন্যবাদ জানালেন। ভারতের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজের আগে এখন অস্ট্রেলিয়ান বিগ-ব্যাশে খেলছেন মরগান। সিডনি থান্ডারের অন্তর্বর্তীকালীন অধিনায়ক তিনি।

ভারতীয় প্রিমিয়ার লীগের (আইপিএল) সানরাইজার্স হায়দরাবাদ তাকে এবার দল থেকে বাদ দিয়ে দিয়েছে। দশম আসরে খেলতে হলে তাকে আবার উঠতে হবে নিলামে। যদিও তার দল বাংলাদেশের তরুণ পেসার মোস্তাফিজুর রহমানকে রেখে দিয়েছে।

ভিডিওঃ তোমরা যারা জাকির নায়েকের বিরোধিতা করো তাদের জন্য এই ভিডিও

Add Comment

Click here to post a comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.