খেলাধুলা

বাংলাদেশ-ওয়েস্ট ইন্ডিস সিরিজে বাংলাদেশ দলের যে চারটি পরিবর্তন

 জয়ের জন্য শেষ ওভারে প্রয়োজন ছিল ৯ রান। আর শেষ বলে জয়ের জন্য দরকার ছিল ৪ রান। সেই বলে দুর্দান্ত ফিল্ডিংয়ে আরিফুল হকের বাউন্ডারি বাঁচান শফিকুল্লাহ। উত্তেজনার ম্যাচে ১ রানে হেরে যায় বাংলাদেশ।

আর এই হারে তিন ম্যাচের টি২০ সিরিজে হোয়াইটওয়াশের লজ্জা পেল টাইগাররা। টেস্ট স্ট্যাটাস পাওয়ার পর এই প্রথম কোনো দলকে হোয়াইটওয়াশ করল আফগানরা।আর এই পরাজয়ে অন্তত কয়েকটা বিষয় নিয়ে সত্যিই ভাবা দরকার। আরও সহজ করে বললে বাংলাদেশ ক্রিকেটে এই পরিবর্তনগুলো এখন সময়ের দাবী হয়ে দাড়িয়েছে।

মুশফিকের উইকেটকিপিং

তাঁর ব্যাটিং যতটা ভালো কিপিং ততটাই খারাপ হয়ে যাচ্ছে দিন দিন। অন্তত লিটন দলে থাকলে মুশির কিপিং করার খুব একটা দরকার আছে কি?

মাহমদউল্লাহর বোলিং

মাহমুদুল্লাহ কে ফুলটাইম অফ স্পিনার হিসেবে ব্যবহার করতে হবে। দলের বর্তমান অফ স্পিন কোটায় খেলা কারো থেকে সে খারাপ বল করে না।

সাকিবের অধিনায়কত্ব

যত যাই হোক না কেন বা যাই বলেন না কেন- সাকিব এই, সাকিব সেই। সাকিব যতটা ভালো ক্রিকেটার ঠিক ততটা ভালো তাঁর অধিনায়কত্ব না।

বোলিং কোচ পরিবর্তন

কোর্টনি এবং সুনীল যোশীকে পরিবর্তন করা এখন সময়ের দাবি, জনগনের দাবি। যারা বলবেন কোচ তো গুলিয়ে খায়িয়ে দেবে না। তাদের কে বলব দলের পেস বোলিং নিয়ে কি আসলেই সন্তুষ্টি আপনারা?