অর্থনীতি-ব্যবসা জাতীয়

বাংলাদেশে প্রথমবারের মতো ডিনামাইট দিয়ে বিজিএমইএ ভবন ভাঙবে রাজউক

বিজনেস ডেস্ক : ডিনামাইট ব্যবহার করে কন্ট্রোল ডিমোলিশন বা নিয়ন্ত্রিত বিস্ফোরণ পদ্ধতি ভেঙে ফেলা হবে হাতিরঝিলে কোনো ধরনের অনুমতি ছাড়াই গড়ে ওঠা বিজিএমইএ ভবন। সেই অনুযায়ী যাবতীয় প্রস্তুতি নিয়ে রেখেছে রাজধানী উন্নয়ন কর্তৃপক্ষ (রাজউক)। এই পদ্ধতি বাস্তবায়িত হলে দেশে ডিনামাইট ব্যবহার করে কোনো ভবন ভাঙার প্রথম নজির হবে এটি।

মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) দুপুরে সারাবাংলাকে এসব তথ্য জানান রাজউকের নির্বাহী মাজিস্ট্রেট জেসমিন আক্তার। এদিন সকালে তৈরি পোশাক কারখানার মালিকদের সংগঠন বিজিএমইএ’র ভবনটি ভাঙার প্রক্রিয়াটি আনুষ্ঠানিকভাবে শুরু হয়।

বিজিএমইএ ভবনের ভেতরে সারাবাংলার সঙ্গে আলাপে জেসমিন আক্তার বলেন, ভবনে থেকে যাওয়া বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের মালামাল সরিয়ে নিতে আমরা সময় দিয়েছি। বলেছি মালামাল সরিয়ে নিতে। মালামাল সরিয়ে নেওয়ার পর আজই ভবনটির গ্যাস, বিদ্যুৎ ও পানিসহ সব সেবার সংযোগ বিচ্ছিন্ন করে দেওয়া হবে।

ভবনটি ভাঙার প্রক্রিয়া নিয়ে জানতে চাইলে নির্বাহী মাজিস্ট্রেট জেসমিন আক্তার বলেন, রাজউকের হাতে ভবনটি ভাঙার জন্য তিন মাস সময় রয়েছে। তবে ভবনটি ভাঙার সব প্রস্তুতি রাজউক নিয়ে রেখেছে। ডিনামাইট দিয়ে ভবনটি গুঁড়িয়ে দেওয়া হবে। এত বড় একটি ভবন ম্যানুয়ালি ভাঙার সুযোগ নেই।

উল্লেখ্য, বাংলাদেশে এই প্রথম ডিনামাইট ব্যবহার করে কোনো ভবন ভাঙার প্রস্তুতি নিয়েছে রাজউক। এ পক্রিয়ায় ভবনটি মুহূর্তেই ধূলায় পরিণত হবে। তবে এতে করে হাতিরঝিলসহ আশপাশের এলাকায় ব্যাপক হারে দূষণের আশঙ্কা রয়েছে। ফলে ভবনটি শেষ পর্যন্ত ডিনামাইটেই উড়িয়ে দেওয়া হবে কি না, তা নিয়েও সন্দেহ জানিয়েছেন কেউ কেউ।

জুমবাংলানিউজ/পিএম