বিনোদন

বলিউডে আসা বিদেশি মেয়েরা সঙ্কটে পড়ে নামছেন দেহ ব্যবসায়ে!

নোট বাতিলের ধাক্কা বলিউডেও? ভারতে ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির প্রাণকেন্দ্র বলিউডে রাশিয়া, উজবেকিস্তান, ফিলিপিন্স, কোরিয়া থেকে আসা ছোটখাট রোলে অভিনয় করা মেয়েরা নোট বাতিলের জেরে প্রবল সমস্যায় পড়ে শেষ পর্যন্ত দেহ ব্যবসায় নামতে বাধ্য হচ্ছেন বলে দাবি এক এজেন্টের।

মুম্বাইয়ের আন্ধেরির বাসিন্দা মঙ্গেশ ভিসে নামে ওই এজেন্ট একটি সংবাদ সংস্থাকে জানিয়েছেন, এই মেয়েরা মূলত বলিউডি ছবিতে, টিভি শোয়ে এবং লাইভ অনুষ্ঠানে নাচের দৃশ্যে থাকেন। কিন্তু এঁরা ভারতের স্থায়ী বাসিন্দা নন, কাজের সূত্রে ট্যুরিস্ট ভিসায় আসা যাওয়া করেন বলে এদেশে এঁদের প্রায় কারও ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্ট নেই। এজেন্টদের মাধ্যমে এরা নগদে পারিশ্রমিক নিয়ে থাকেন। কিন্তু ৮ নভেম্বরের প্রধানমন্ত্রীর ৫০০, ১০০০ টাকার নোট বাতিলের সিদ্ধান্তে নগদের আকাল তৈরি হওয়ায় এঁরা অথৈ জলে পড়েছেন। অনেকে মিলে একসঙ্গে মুম্বাইয়ের দামী এলাকায় যে ভাড়াবাড়িতে থাকেন, সেখানকার বাড়িমালিককে ভাড়ার টাকা দিতে পারছেন না। উপায় না থাকায় তাঁরা ভাড়াবাড়ির মালিককে প্রস্তাব দিচ্ছেন, নগদে ভাড়া না মিটিয়ে পরিবর্তে তাঁর শয্যাসঙ্গী হতে রাজি তাঁরা। এভাবেই তাঁদের দেহ ব্যবসায় নামার মতো পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে।

সাধারণত বলিউডে কিছুদিনের জন্য কাজ করে দেশে ফিরে যান এঁরা, আবার আসেন। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতিতে দেশে ফেরাও কঠিন। একদিকে ভাড়ার জন্য ফ্ল্যাটমালিকের নিত্য তাগাদা, আবার নতুন নোট না থাকায় বিমানের টিকিট কেনাও সম্ভব হচ্ছে না। যে এজেন্টরা ওঁদের বলিউডে বা টিভি ইন্ডাস্ট্রিতে কাজ জোগাড় করে দিয়েছেন, তাঁদের পক্ষেও নগদের অভাবে খুব বেশি সাহায্য করা সম্ভব হচ্ছে না।

উজবেকিস্তান থেকে আসা এমন এক শিল্পী মঙ্গেশকে জানিয়েছেন, তাঁর কাছে যে পুরানো নোট আছে, তা বদলে দিতে রাজি হয়েছে এক দালাল। কিন্তু বিনিময়ে নতুন নোটের সিংহভাগ চাইছে সে। শেষ পর্যন্ত রফা করে পুরানো নোটের মাত্র ৩০ শতাংশ নতুন নোটে বদলাতে পেরেছেন তিনি। কান্নায় ভেঙে পড়ে মরিয়া হয়ে পুলিশের কাছে যাওয়ার কথাও ভাবেন তিনি। কিন্তু কেউ তাঁকে সাহায্য করেনি।

মঙ্গেশ জানিয়েছেন, নোট বাতিল হওয়ার পর থেকে তিনি অন্তত ১২টি কল পেয়েছেন বিদেশি মেয়েদের কাছ থেকে, যাঁরা দেহ ব্যবসায় নামতে চান, খদ্দের খুঁজছেন।

ভিডিওঃ বিশ্বাস হবে না এই ১৫ জন মহিলা এক সময় বলিউডের হার্ট থ্রব নায়িকা ছিলেন

Add Comment

Click here to post a comment