বিনোদন

বলিউডের ১০ শীর্ষ ধনী অভিনেত্রী

বলিউড মানেই স্বপ্নিল এক জগৎ, ঝলমলে আলোর অন্য এক দুনিয়া। এখানে নিজেদের সেরাটা দিয়েই পাকা একটি অবস্থান তৈরি করে নিতে হয় তারকাদের।

এ খেলায় কেউ পারে কেউ বা হারে। এভাবেই চলছে বলিউড।

অনেক অভিনেতা অভিনেত্রীরাই এখানে এসেছেন, কেউ আছেন কেউ ঝরে গেছেন। কেউ বা আবার গাড়ি বাড়ি অঢেল সম্পদের মালিকও হয়েছেন।

সেই দুনিয়ার স্বপ্নরাণীদের মধ্য এমনই ১০ অভিনেত্রী আছেন, যারা সম্পদের তালিকায় প্রথম সারির দিকে রয়েছেন।

যারা বলিউডে সব থেকে ধনী। তাহলে আসুন জেনে নিই কারা সেসব নায়িকা। কত টাকারই বা মালিক তারা?

ঐশ্বর্যা রাই— ঐশ্বরিয়া রাই বচ্চন। ক্যারিয়ারের শুরু থেকে এখন পর্যন্ত মসৃণ গতিতে এগিয়েছেন। বিশাল সাফল্যের পাশাপাশি তার বড় সাফল্য, কখনোই কোনো বড় ব্যর্থতার মুখোমুখি হননি। আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও তারকাখ্যাতি পাওয়া এই সাবেক বিশ্বসুন্দরীর নিজস্ব সম্পত্তির পরিমাণ ২৩৮ কোটি লাখ ডলারের।

আমিশা পটেল— কহো না…পেয়ার হ্যায়’ ছবি দিয়ে স্বপ্নিল অভিষেক হয়েছিল আমিশা প্যাটেলের। তার পর কিছুদিন ভালোভাবে চললেও সুবিধা করতে পারছিলেন না। সানি দেওলের সঙ্গে ‘গাদার’ ছবিতে অভিনয় করে আবারো আলোচনায় এলেও বলিউডে আর তেমন কিছু করতে পারেননি। ক্যারিয়ার চালু রেখেছেন দক্ষিণে। ২০৪ কোটি লাখ ডলারের মালকিন তিনি।

অমৃতা সিংহ— পাতৌদির ছোটে নবাব সাইফ আলি খানের প্রথম পক্ষের স্ত্রী তিনি। সাবেক এই অভিনেত্রীকে এখন আর চলচ্চিত্র তেমন দেখা না গেলেও সম্পতি আর্জনে পিছিয়ে নেই তিনি। মোট সম্পত্তি ১৩৬ কোটি লাখ ডলারের তিনি।

কাজল— বলিউডে মূলধারার বাণিজ্যিক ছবিতে আবেদন আর অভিনয়ের সংজ্ঞাই বদলে দিয়েছিলেন কাজল। ক্যারিয়ারে রীতিমতো ছয়টি ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড পেয়েছেন। তার আর শাহরুখ খানের জুটি বলিউডের সব সময়ের সেরা জুটির একটি। মিসেস দেবগনের সম্পত্তির পরিমাণ ১ কোটি ৬০ লাখ ডলারের।

ইলিয়ানা ডি ক্রুজ— ৯৫ কোটি ২০ লক্ষ টাকার মালকিন। বলিউডে ইলিয়েনার আগমন ‘বারফি’ দিয়ে। স্বপ্নের মতো অভিষেক ঘটলেও পরে আর ‘ম্যায় তেরা হিরো’ ছাড়া অন্য তেমন কিছুতেই সাফল্য পাননি। তাতে কী, দক্ষিণে তো তিনি দারুণ ব্যবসাসফল!

করিশ্মা কপুর— কারিশমা কাপুর দীর্ঘদিন ধরে মেইনস্ট্রিম বলিউড ছবির সফল অভিনেত্রী ছিলেন। ফ্যাশন সেন্সের জন্য সব সময় পেয়েছেন আলাদা প্রশংসা। কিছুদিন আগে বিচ্ছেদ হয়েছে স্বামীর সঙ্গে। রাজ কাপুরের নাতনিটির সম্পত্তির পরিমাণ এক কোটি ২০ লাখ মার্কিন ডলার।
ডিম্পল কাপাডিয়া— ‘ববি’ দিয়ে আলোড়ন তুলেছিলেন সেই ১৯৭৩ সালে। তার পর সময় গেলেও ফুরোয়নি ডিম্পলের জাদুকরি আকর্ষণ। এখনো প্রায়ই কাজ করেন ছবিতে। মোট সম্পত্তি তারও এক কোটি মার্কিন ডলারের।

মল্লিকা শেরওয়াত— মোট সম্পতির মূল্য ৬৮ কোটি টাকা। ‘খোয়াইশ’ থেকে মার্ডার। একসময়ে কেবল শরীরী আবেদনে বলিউডে পরিচিত হলেও সময়ের সঙ্গে সঙ্গে মল্লিকা শেরওয়াত মাত করেছেন বাইরের দুনিয়াও।

প্রীতি জিন্টা— মোট সম্পতির মূল্য ৬৮ কোটি টাকা। অভিনেত্রী পরিচয় প্রীতির জন্য এখন মোটামুটি সাবেক। মালিকানাধীন ‘কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব’ ক্রিকেট দলটি নিয়েই মনোযোগ আর বেশিটা সময় চলে যায়। কিছুদিন পর তার নতুন ছবি ‘ভাইয়াজি সুপারহিট’-এর কাজ শুরু হওয়ার কথা রয়েছে।
প্রিয়ঙ্কা চোপড়া— তার মোট সম্পত্তির পরিমাণ ৮০ লাখ মার্কিন ডলার। এ বছরে প্রিয়াঙ্কার বড় চমক ছিল হলিউডে পদার্পণ। কোয়ান্টিকো নামের একটি অ্যাকশন সিরিয়ালে কেন্দ্রীয় চরিত্রে অভিনয় করছেন বলিউডের ‘পি সি’! কয়েক দিন বাদেই মুক্তি পেতে যাচ্ছে তার ‘দিল ধাড়াকনে দো’।

ভিডিওঃ মা হারালে মা পাওয়া যায়, কিন্তু বউ হারালে বউ পাওয়া যায় না: চিরঞ্জিত [ভিডিও]

Add Comment

Click here to post a comment