জাতীয় সংসদ নির্বাচন বরিশাল রাজনীতি

বরিশালে আ.লীগ কর্মীদের ওপর বিএনপি প্রার্থীর গুলিবর্ষণের অভিযোগ

জুমবাংলা ডেস্ক : বরিশালের বানারীপাড়ায় আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীদের ওপর বিএনপি প্রার্থী ও তার সমর্থকরা হামলা ও গুলিবর্ষণ করেছে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। খবর ইউএনবি’র

সোমবার বিকালে বানারীপাড়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় প্রথম দফায় এবং পরে নারায়ণপুরে এসব ঘটনা ঘটে। পৃথক হামলায় আওয়ামী লীগের প্রায় ১৬ নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন।

তবে বিএনপির দাবি, আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা তাদের ওপর অতর্কিত হামলা চালিয়েছে। এতে বিএনপি প্রার্থী সারফুদ্দিন আহম্মেদ সান্টুসহ পাঁচজন আহত হয়েছেন।

বানারীপাড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি ও যুবলীগ নেতা জাকির হোসেন বলেন, ‘নৌকার সমর্থকরা প্রতিদিনের মতো আজ বিকালে আওয়ামী লীগ প্রার্থীর পক্ষে প্রচারণার জন্য বানারীপাড়া বাসস্ট্যান্ড এলাকায় নির্বাচনী কার্যালয়ের সামনে জড়ো হয়। এসময় বরিশাল-২ আসনের বিএনপি প্রার্থী সরফুদ্দিন আহম্মেদ সান্টু ও তার সমর্থকরা গাড়িবহর নিয়ে এসে অতর্কিতভাবে হামলা চালায়। তারা ১৬-১৭ রাউন্ড গুলিবর্ষণ করলে আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা আতঙ্কে ছুটতে শুরু করেন। এসময় ৭-৮ জন আহত হন।’

গুরুতর আহত বানারীপাড়া উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম সম্পাদক দুলাল তালুকদার ও পৌর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক রাজু খানকে বরিশাল শেরে বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া বাকিরা স্থানীয় হাসপাতালে চিকিৎসা নিয়েছেন।

জাকির হোসেন আরও জানান, বানারীপাড়া থেকে গুঠিয়ায় ফেরার পথে বিএনপি নেতা-কর্মীরা নারায়ণপুরে আওয়ামী লীগের নির্বাচনী কার্যালয়ে ভাঙচুর চালায়। এসময় ধানের শীষের সমর্থকরা পাঁচটি মোটরসাইকেল ভাঙচুর এবং আটজনকে পিটিয়ে আহত করে।

তবে বিএনপি নেতারা বলছেন, এরকম কোনো হামলার ঘটনা ঘটেনি। উল্টো আওয়ামী লীগের নেতা-কর্মীরা হামলা চালিয়েছেন।

বানারীপাড়া উপজেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক রিয়াজ মৃধা বলেন, ‘বিএনপির প্রার্থী সরফুদ্দিন আহমেদ সান্টু বিকালে বানারীপাড়ায় প্রশাসনের কর্মকর্তাদের সাথে দেখা করতে আসেন। তিনি বাসস্ট্যান্ড এলাকা অতিক্রম করার সময় নৌকা প্রতীকের সমর্থকরা প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করে এবং বিএনপি প্রার্থীর ওপর হামলা চালায়। তাকে উদ্ধার করতে গিয়ে আমাদের ৪-৫ জন নেতা-কর্মী আহত হন। সেখান থেকে কোনোভাবে বেঁচে এসেছি।’

গুলিবর্ষণের বিষয়ে তিনি বলেন, ‘এ রকম কোনো ঘটনা ঘটেনি। তবে আত্মরক্ষার্থে প্রার্থী তার লাইসেন্সধারী অস্ত্র দিয়ে গুলি ছুড়তে পারেন।’

এবিষয়ে বানারীপাড়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) বেল্লাল হোসেন বলেন, ‘বিএনপি নেতা-কর্মীদের হামলায় আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন নেতাকর্মী আহত হওয়ার বিষয়টি শুনেছি। এছাড়া বিএনপি প্রার্থী চার রাউন্ডের মতো ফাঁকা গুলি ছুড়েছেন বলে জানা গেছে। পুরো বিষয়টি খতিয়ে দেখা এবং আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে।

জুমবাংলানিউজ/এইচএম