খেলাধুলা

ফের কোচিংয়ে যোগ দিচ্ছেন ম্যারাডোনা

ফের কোচিং পেশায় যোগ দিতে যাচ্ছেন দিয়াগো ম্যারাডোনা। এ জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছেন আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার ডিয়েগো ম্যারাডোনা। কিছুদিন আগে শিরোনামে এসেছিলেন কোন রকম পারিশ্রমিক গ্রহণ না করেও দ্বিতীয় দফায় জাতীয় দলের কোচের দায়িত্ব পালনে প্রস্তুত তিনি। এবার নতুন খবর তারই সাবেক ক্লাব নাপোলির কোচ হতে যাচ্ছেন আর্জেন্টাইন কিংবদন্তি।

ম্যারাডোনার প্রতিনিধি সেফানো সেসি ইতালিয়ান সংবাদ মাধ্যমকে জানিয়েছেন যে, সাবেক নাপোলির আইকন এবার কোচ হিসেবে যোগদানের জন্য আলোচনা করছেন। তার বিশ্বাস নাপোলির জন্য ম্যারাডোনাই যোগ্য। এ বিষয়ে সেসি বলেন, ‘ক্লাবটির কোচ হিসেবে ম্যারাডোনাই যোগ্য। নাপোলির প্রতি তার ভালোবাসা অপরিসীম। বিশেষ করে ক্লাবের সমর্থকদের প্রতি রয়েছে ম্যারাডোনার সীমাহীন ভালোবাসা।’

কারণ ৫৬ বছর বয়সী এই ফুটবল কিংবদন্তি দীর্ঘ সাত বছর ইতালির এই ক্লাবে খেলেছেন। এই সময়ের মধ্যে তিনবার সিরিয়া লীগ, উয়েফা কাপ, কোপা ইতালিয়া এবং সুপার কোপাও জয়ের স্বাদ পেয়েছেন তিনি। সাবেক কিংবদন্তির কোচ হয়ে আসার খবরে নাপোলির সব ফুটবলাররাই রোমাঞ্চিত। এমনকি ম্যারাডোনা নিজেও।

তবে ম্যারাডোনা নিশ্চিতভাবেই ফুটবলবিশ্বের অন্যতম সেরা খেলোয়াড়। জাতীয় দল ও ক্লাব ফুটবল- উভয় ক্ষেত্রেই সমানভাবে সফল ছিলেন তিনি। ১৯৮৬ সালে আর্জেন্টিনাকে প্রায় একাই শিরোপা জিতিয়েছিলেন ম্যারাডোনা। ব্যর্থতার মুখ দেখেননি ক্লাব ফুটবলের জগতেও। নাপোলিতে এখনও শ্রদ্ধার পাত্র হিসেবেই বিবেচিত তিনি।

কিন্তু এই ফুটবল জাদুকর একেবারেই সফল হতে পারেননি কোচিং ক্যারিয়ারে। নিজ দেশ আর্জেন্টিনার কোচ হিসেবেই যাত্রা শুরু করেছিলেন ম্যারাডোনা। ২০১০ বিশ্বকাপের অন্যতম ফেবারিট হিসেবে বিবেচিত হলেও আর্জেন্টিনাকে বিদায় নিতে হয়েছিল কোয়ার্টার ফাইনাল থেকে। জার্মানির কাছে ৪-০ গোলের বড় ব্যবধানে হারের পর নিজে থেকেই কোচের পদ থেকে সরে দাঁড়ান তিনি।

পাড়ি জমিয়েছিলেন ক্লাব ফুটবলের জগতে। অনেক জল্পনা-কল্পনার পর তিনি যোগ দিয়েছিলেন আরব আমিরাতের ক্লাব আল ওয়াসলে। কিন্তু সেখানেও সফল হতে পারেননি কোচ ম্যারাডোনা। ১২ দলের প্রতিযোগিতায় আল ওয়াসল লিগ শেষ করেছিল অষ্টম দল হিসেবে। যেকারণেই ম্যারাডোনাকে বহিষ্কারের সিদ্ধান্ত নেয় ক্লাবটি।

ভিডিও নিউজ : বিশ্ববাসীকে চমকে দেওয়া বাংলাদেশের অবাক করা সেরা ১০টি ক্যাচ, দেখুন ভিডিওতে…

Add Comment

Click here to post a comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.