জাতীয় স্বাস্থ্য

প্রতিদিন মাত্র ১টি কলা খেলেই অবিশ্বাস্য ১১ স্বাস্থ্য উপকারিতা!

বিশেষজ্ঞরা বলেন, কলার মতো গুণী ফল বা খাবার আর কিছু হয় না। এটি এমন একটি ফল যা সহজলভ্য ও নানা উপায়ে শরীরের উপকারে আসে। অনেকের ধারণা কলা খেলে মানুষ মোটা হয়ে যায় বা ডায়বেটিসের সমস্যা দেখা দেয় যা কোনওভাবেই ঠিক নয়। কোনওভাবেই কলা খেলে শরীরের তেমন কোনও ক্ষতি হয় না।

এটি এমন একটি ফল যা শুধু খাওয়া ছাড়াও নানা উপায়ে অন্যকিছুর সঙ্গে একসঙ্গে খাওয়া যায়। এছাড়া ফেস প্যাক করে মুখে মেখেও কলা থেকে উপকার পাওয়া সম্ভব। জেনে নিন, কোন কোন গুণের জন্য প্রতিদিন অবশ্যই একটি করে কলা খাবেন।

১. মেদ ঝরায় : কলায় রয়েছে কোলিন ও ভিটামিন বি যা পেটে ফ্যাট জমতে দেয় না। একইসঙ্গে দেহের অন্য জায়গাতেও জমে থাকা মেদ ঝরিয়ে দেয়।

২.গ্যাস দূর করে : পেটে গ্যাস ও অন্যান্য সমস্যা থাকলে রোজ ১-২টি করে কলা খান। এতে উপকার পাবেন। কলা খেলে অন্ত্রে উপকারী ব্যাকটেরিয়া তৈরি হয় যা গ্য়াস জমতে দেয় না।

৩. ডায়বেটিসের সঙ্গে লড়ে : খাবারে থাকা চিনি ও শর্করা উপাদানকে কলা শুষে নেয়। ফলে তা রক্তে মিশতে পারে না। এছাড়া এতে থাকা প্রোটিন ও ফ্যাট ডায়বেটিস রোধে বিশেষ ভূমিকা নেয়।
৪. পেট স্লিম করে : কলায় থাকা পটাশিয়াম শরীরে অতিরিক্ত পানি বের করে দেয়। এছাড়া যেহেতুগ্যাস জমতে দেয় না, ফলে পেট অনেক কম ফোলা থাকে।

৫.মন খুশি থাকে : কলা খেলে মন খুশিতে ভরে ওঠে। এতে থাকা উপাদান উদ্বেগ কমিয়ে সঙ্গে সঙ্গে মুড ঠিক করে মনকে খুশিতে ভরিয়ে তোলে।

৬. মাংসপেশী গঠন করে : কলায় রয়েছে ম্যাগনেশিয়াম যা মাংসপেশী গঠনে বিশেষ সাহায্য করে। কলা খেলে খুব দ্রুত মাংসপেশীর গঠন তৈরি হয়।

৭. বেদনা দূর করে : নানা কাজের পরে শরীরে ব্যথা-বেদনা হয়। তবে কলা খেলে তা অনেকটা দূর হয়ে যায়। কলায় থাকা পটাশিয়াম ব্যথা সারাতে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা নেয়।

৮. রাগ প্রশমন করে : আপনি যদি অল্পেতেই রেগে যান ও বিরক্ত হন তাহলে তা কমাতে রোজের ডায়েটে কলা রাখুন। নোরপাইনফ্রিন নামক এমন উপাদান কলায় রয়েছে যা রাগ প্রশমনে বিশেষ ভূমিকা নেয়।
৯. ঘুম ভালো হয় : আজকের দিনে অনেকেই অনিদ্রার শিকার। কলা খেলে তা দূর হতে পারে। কারণ কলায় রয়েছে ‘টাইপ্টোফ্যান’ নামক অ্যামাইনো অ্যাসিড যা ঘুমোতে সাহায্য করে।

১০. কোলেস্টেরল কমায়: শরীরের ক্ষতিকর কোলেস্টেরল কমাতে কলা বিশেষ সাহায্য করে। ফাইটোস্টেরল নামক ক্ষতিকর কোলেস্টেরলের ফলে হা্রট অ্যাটাক ও স্ট্রোকের ঝুঁকি বাড়ে যা কলা কমাতে পারে।
১১. হাড় শক্ত করে : কলায় থাকা ক্যালশিয়াম হাড়কে মজবুত করে ও হাড়ের ক্ষয় রোধ করে।