অপরাধ/দুর্নীতি

পায়ুপথে হাওয়া ঃ মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছে শিশু শ্রমিক কাইয়ুম

সিরাজগঞ্জের কামারখন্দ উপজেলার ভদ্রঘাটে ইউনিয়নে  পায়ুপথে বাতাস ঢুকিয়ে পোল্ট্রিফিড তৈরির কারখানার শিশু শ্রমিক কাইয়ুমকে হত্যার চেষ্টা চালানো হয়। বগুড়ার শহীদ জিয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ওই শিশুটি এখন মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে। শিশু কাইয়ুম সদর উপজেলার বিল-গজারিয়া গ্রামের ইলিয়াস আলীর পুত্র।

শিশুটির মা ববিতা খাতুন জানান, শনিবার সকালে এসিআই গোদরেজ ফিডমিলের শিশু শ্রমিক কাইয়ুমকে কয়েকজন শ্রমিক মিলে পায়ুপথে হাওয়া ঢুকিয়ে হত্যার চেষ্টা করে। এতে কাইয়ুমের পেট অত্যধিক ফুলে যায়। অন্য শ্রমিকরা তাকে উদ্ধার করে সিরাজগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে তাকে শহরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে সন্ধ্যার দিকে চিকিৎসকরা তাকে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে রেফার্ড করে।

পরে শনিবার রাতে তাকে শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজের শিশু ওয়ার্ডের সার্জিক্যাল ইউনিটে ভর্তি করা হয়। এরপর তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হয়। রোববার দুপুর ১২ টায় আইসিইউতে গেলে দেখা যায় কাইয়ুমকে অপারেশনের জন্য নিয়ে যাওয়া হচ্ছে।

বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. নির্মলেন্দু চৌধুরী জানান, সিরাজগঞ্জে পায়ুপথে বাতাস দেওয়ায় শিশু কাইয়ুমের নাড়ির কিছু অংশ ছিঁড়ে গেছে। তার চিকিৎসায় সার্জারি বিভাগের প্রধান ডা. আবদুল মোত্তালেবের নেতৃত্বে ৫ সদস্যের মেডিকেল টিম গঠন করে প্রায় সাড়ে তিন ঘণ্টা ব্যাপী তার পেটের অস্ত্রোপচার সম্পন্ন করা হয়। তবে ৭২ ঘণ্টা সম্পন্ন না হওয়া পর্যন্ত শিশুটি আশঙ্কাজনক কিনা তা বলা যাবে না। পরিবর্তন.কম