খেলাধুলা

পাঞ্জাবের জয়ের পর যুবরাজের বাহুলগ্ন নায়িকা প্রীতি

আইপিএলে কিংস ইলেভেন পাঞ্জাব এখনও অধরা শিরোপা হাতে তুলতে পারেনি। বলিউড নায়িকা প্রীতি জিনতার এ নিয়ে একটা দুঃখবোধ রয়েই গেছে। তবে এবার যে দলটি তারা সাজিয়েছে সেটি চ্যাম্পিয়ন হওয়ার মতোই। ক্রিস গেইলকে কেউ নিলামে ডাকছিল না। শেষ অবধি তৃতীয়বারে গিয়ে পাঞ্জাবের মেন্টর বিরেন্দ্র শেবাগ সিদ্ধান্ত নেন গেইলকে কেনার।

একইভাবে যুবরাজ সিংয়ের ব্যাপারেও কোনো দলের আগ্রহ ছিল না। জাতীয় দলে খেলার সময় শেবাগ-যুবরাজ ছিলেন হরিহর আত্মা। এ কারণ থেকেই যুবরাজকে তুলে নেন। এরই মধ্যে প্রথম তিন ম্যাচ খেলে ফেলেছেন তিনি। কিন্তু এখনও ছন্দে ফিরতে পারেননি। যুবরাজের শট বলের দূর্বলতা এখনও কাটেনি।

তবে দুই ম্যাচ বসে থাকার পর তৃতীয় ম্যাচে নামার সুযোগ পান গেইল। আর নেমেই চেন্নাইয়ের বোলারদের আছড়ে ফেলেছেন গ্যালারিতে। ৩৩ বলে খেলেছেন ৬৩ রানের ইনিংস। চারটি ছক্কার বিপরীতে চার মেরেছেন সাতটি। গেইলের সৌজন্যে স্কোরবোর্ডে ১৯৭ রানের সংগ্রহ পায় পাঞ্জাব।

রান তাড়া করতে নেমে ধোনি একাই ম্যাচ বের করে নিয়ে যাচ্ছিলেন। কিন্তু শেষ রক্ষা হয়নি ৪ রানে হেরে। তিন ম্যাচের দুটিতে জিতল পাঞ্জাব। জয়ের পর যুবরাজকে জড়িয়ে ধরার পর বোঝা যাচ্ছিল, তিনি কতটা খুশি! যুবরাজও তাকে বাহুলগ্ন করে ফেলেন। দু’জনই ছিলেন হাস্যেজ্বল।

preeti

এখানে বলে রাখা ভালো, আইপিএলের শুরুতে এই যুবরাজই ছিলেন পাঞ্জাবের অধিনায়ক। প্রীতি খুবই পছন্দ করতেন যুবিকে। সেই পছন্দ এক সময় ভালোলাগা অবধি গড়ায়।

২০০৯ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার প্রবাসী আইপিএলে যুবরাজ-প্রীতিকে একসঙ্গে বিভিন্ন পার্টিতেও দেখা গেছে। সেই সময় তাদের এই ঘনিষ্ঠতা আলোচনার জন্ম দিয়েছিল। এখন প্রীত-যুবরাজ দুজনেই বিবাহিত।

জুমবাংলানিউজ/আর