বিনোদন

তালাকনামা পাঠিয়ে নতুন বিপদে পড়তে যাচ্ছেন কিং খান

তালাকনামা পৌঁছেছে অপুর হাতে। তবে এই তালাকনামা কার্যকর হবে নোটিশ পাঠানোর তারিখ থেকে তিন মাস পর। অপুর সিদ্ধান্ত এখন পর্যন্ত জানা যায়নি। সময় চেয়েছেন এ বিষয়ে কথা বলার জন্য। শাকিব চাইলেও অপু চাচ্ছেন না সংসারটা ভেঙে যাক। কারণ তাদের দুজনের মধ্যে রয়েছে একমাত্র পুত্র সন্তান জয়। সন্তানের কথা মাথায় রেখে এখনও সময় আছে আপস-মীমাংসার। ২০০৮ সালে বিয়ে করার পর ২০১৭ পর্যন্ত গোপনই ছিলো তাদের এই সংবাদ। চলতি বছরের সবাই খবরটি জানলেও বছর শেষ হচ্ছে তাদের বিচ্ছেদ দিয়ে। কোনভাবে যদি মীমাংসা না হয় তবে অপুকে শাকিবের দিতে হবে মোটা অংকের দেনমোহর।

কিন্তু কত টাকা ছিলো শাকিব-অপুর দেনমোহর? শাকিবের আইনজীবী সিরাজুল ইসলাম মারফত জানা গেছে শাকিব-অপুর বিয়ের কাবিনে দেনমোহর বাবদ শুধু ৭ লাখ টাকা ধার্য করা ছিল। তবে অপু জানিয়েছেন ভিন্ন কথা। তাদের বিয়ের বিয়ের কাবিননামায় টাকার অংক (দেনমোহর বাবদ) উল্লেখ আছে ১ কোটি ৭ লাখ। যদি চুড়ান্ত কোন সিদ্ধান্ত হয়, এর পুরোটাই তাকে দিতে হবে। আর এটা হবে শাকিবের জন্য আরেক মহা বিপদ।

এখন প্রশ্ন হল, শাকিব দেনমোহর পুরো টাকাটা একসাথে দিতে পারবেন? যদিও তিনি কিং খান, তবুও বেগ পেতে হবে পুরো টাকা একসাথে দিতে।