রাজনীতি

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে সাখাওয়াতের ২৫ প্রতিশ্রুতি

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন (নাসিক) নির্বাচনে ইশতেহার ঘোষণা করেছেন বিএনপির প্রার্থী অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান।

নগরীর উন্নয়নে সর্বদলীয় উপদেষ্টা পরিষদ গঠনসহ ২৫ দফা নির্বাচনী ইশতেহার ঘোষণা করেন তিনি।

সোমবার বিকাল ৩টার দিকে নারায়ণগঞ্জ শহরের শায়েস্তা খান রোডে নিজের নির্বাচনী ক্যাম্পে সংবাদ সম্মেলনে সাখাওয়াত এই ইশতেহার ঘোষণা করেন।

তিনি বলেন, বিজয়ী হলে নগরীকে সন্ত্রাস, মাদক মুক্ত করা, পরিষ্কার-পরিচ্ছন্নতা নিশ্চিত ও যানজটমুক্ত করাকে অগ্রাধিকার দেবেন তিনি। নির্বাচিত হওয়ার পর সব দল ও মতের মানুষকে নিয়ে উপদেষ্টা পরিষদ গঠন করা হবে।

ঘোষিত ২৫ দফা ইশতেহারের প্রথমটি হলো- সিটি কর্পোরেশন পরিচালনার জন্য দলমত নির্বিশেষে সব ধর্ম, বর্ণ ও পেশার লোকদের সমন্বয়ে উপদেষ্টা পরিষদ গঠন।

অন্য প্রতিশ্রুতিগুলোর মধ্যে রয়েছে- শীতলক্ষ্যা সেতুর বাস্তবায়ন, ২ নং রেল গেট ও চাষাড়ায় দুটি ফ্লাইওভার অথবা আন্ডারপাস নির্মাণ, মাস্টার প্ল্যানের মাধ্যমে ড্রেনেজ ব্যবস্থা আধুনিকায়ন, নারায়ণগঞ্জ ও বন্দরে মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতাল, ইঞ্জনিয়ারিং কলেজ এবং পূর্ণাঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় প্রতিষ্ঠার পদক্ষেপ গ্রহণ।

ঘোষিত ইশতেহারের পরও গঠিত উপদেষ্টা পরিষেদের মতামত ও পরামর্শ নিয়ে নগরবাসীর জন্য যা যা ভালো তাই করার প্রতিশ্রুতি দেন বিএনপির মেয়র প্রার্থী।

এসময় উপস্থিত ছিলেন বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায়, ভাইস চেয়ারম্যান মেজর (অব.) হাফিজ উদ্দিন আহমেদ, চেয়ারপারসনের উপদেষ্টা আবদুস সালাম, আমন উল্লাহ আমান, যুগ্ম মহাসচিব খায়রুল কবির খোকন, সাংগঠনিক সম্পাদক ফজলুল হক মিলন, নজরুল ইসলাম মঞ্জু, শামা ওবায়েদ, নারায়ণগঞ্জ জেলা বিএনপির সভাপতি তৈমুর আলম খন্দকার, সাধারণ সম্পাদক কাজী মনিরুজ্জামান মনির, সাবেক সংসদ সদস্য আবুল কালাম, শহর বিএনপির সাধারণ সম্পাদক এটিএম কামাল, বিএনপির কেন্দ্রীয় নেতা এবিএম মোশাররফ হোসেন, শহিদুল ইসলাম বাবুল, সেলিমুজ্জামান সেলিম, হারুন অর রশিদ, আমিরুল ইসলাম শিমুল, হাসান মামুন, হায়দার আলী লেলিন, ওমর ফারুক সাফিন, শেখ মো. শামীম, মোস্তাফিজুর রহমান দিপু ভূইয়া, আনিসুর রহমান তালুকদার খোকন, ওবায়দুল হক নাসির প্রমুখ।

এদিকে জোটের প্রার্থী সাখাওয়াতকে সমর্থন জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানোর ঘোষণা দিয়েছেন বাংলাদেশ কল্যাণপার্টির মেয়র প্রার্থী রাশেদ ফেরদৌস।

দুপুরে কালিবাজারে অবস্থিত বিএনপির মিডিয়া সেলে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘আমি দলীয় নির্দেশ মোতাবেক বিএনপির প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানকে সমর্থন জানিয়ে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ালাম। আমি এখন থেকে সাখাওয়াতের নির্বাচনী কাজের একজন কর্মী হিসেবে নিজেকে নিয়োজিত রাখবো।’

এসময় জোটের প্রার্থীর সমর্থনে নির্বাচন থেকে সরে দাঁড়ানো এলডিপির মেয়র প্রার্থী কামাল প্রধানও বিএনপি প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খানের হাতে ধানের শীষ তুলে দিয়ে তাকে সমর্থন জানান।

Add Comment

Click here to post a comment