রাজনীতি

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে পরাজয় নিয়ে কোনো মন্তব্য করেননি সাখাওয়াত

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে পরাজয়ের পর তাৎক্ষণিকভাবে কোনো মন্তব্য করতে রাজি হননি বিএনপি প্রার্থী অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান। বৃহস্পতিবার রাতে তিনি যুগান্তরকে বলেন, ‘এ বিষয়ে আমি কোনো মন্তব্য করব না। কেন্দ্রীয়ভাবে আমার দলের পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিক প্রতিক্রিয়া জানানো হবে।’

এর আগে সকালে শহরের মিশনপাড়া এলাকার বৈশাখী রেস্টুরেন্টে নাস্তা শেষে দুই রাকাত নফল নামাজ আদায় করে ভোট কেন্দ্রে যান সাখাওয়াত। সকাল সাড়ে ৮টায় ১৩নং ওয়ার্ডের আদর্শ বিদ্যালয় কেন্দ্রে ভোট দেন তিনি।

ভোট দেয়ার আগে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘আমরা চাই অবাধ সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচন। যদি সুষ্ঠু নির্বাচন হয়, জনগণ যদি তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারেন, তাহলে ফলাফল যাই হবে মেনে নেব।’
সকালে সাখাওয়াত তার ভোট কেন্দ্রে বিজিবি সদস্যদের না দেখে এ নিয়ে কথা বলেন। তিনি বলেন, ভোট কেন্দ্রে বিজিবি মোতায়েন করার কথা ছিল। তা তো দেখছি না। ভোটের পরিবেশ কেমন দেখছেন- জানতে চাইলে সাখাওয়াত বলেন, এখন পর্যন্ত সার্বিক পরিস্থিতি ভালো আছে। আশা করব শেষ পর্যন্ত কোনো খারাপ খবর শুনব না।

ভোট দিয়ে সাখাওয়াত বলেন, ‘আমি চাই নির্বাচন অবাধ হোক। মানুষ এসে ভোট দিক। প্রশাসনও নিরপেক্ষ হোক যাতে ভোটাররা নির্ভয়ে ভোট দিতে পারেন। এখন পর্যন্ত কোনো খারাপ খবর আসেনি।’
এদিকে দুপুরের দিকে ভোটারদের কেন্দ্রে না আসার জন্য ‘টেম্পারিং’ করা হচ্ছে অভিযোগ তোলেন বিএনপির প্রার্থী সাখাওয়াত হোসেন খান। বেলা সোয়া ১টার দিকে নারায়ণগঞ্জের সিদ্ধিরগঞ্জ থানার তাঁতখানা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র পরিদর্শন করতে গিয়ে এ অভিযোগ করেন সাখাওয়াত। তিনি বলেন, ভোট শেষ হওয়ার আগে আমি কোনো মন্তব্য করব না। তবে মনে হয় ভোটারদের কেন্দ্রে না আসার জন্য টেম্পারিং করা হচ্ছে। তাই বেশি ভোটার আসছে না।’

Add Comment

Click here to post a comment

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.