Exceptional ধর্ম

নওমুসলিম মেয়ের আচরণে মুগ্ধ হয়ে মুসলমান হলো পরিবারের সবাই

ছবি- সংগৃহীত

জুমবাংলা ডেস্ক: ধর্মান্তরিত হয়ে হয়ে হিন্দু থেকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেন সিলেটের ওসমানীনগরে ২ বোন জোসনা ও মরিয়ম। নওমুসলিম হওয়া ওই ২ বোনের আচরণে তাদের মা-বাবাসহ পরিবারের সবাই ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন।

জানা যায়, জোসনা ও মরিয়ম নামের ওই ২ বোন ২০০৪ সালের ২৫ জানুয়ারী ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করলেও পরিবারের সবার সাথে তাদের সর্ম্পকছেদের পরিবর্তে আরো দায়িত্বশীল হয়ে উঠে তারা। ধর্মান্তরিত মেয়েদের এমন আচরণে ইসলাম ধর্মের প্রতি আগ্রহী হয়ে উঠেন বাবা রাধীকা রায়। এভাবে দিন-মাস-বছর গড়িয়ে যায়। তারর্পও ধর্মান্তরিত মেয়েরা স্বামীর পরিবারে থাকলেও পিতা মাতার প্রতি তাদের সর্ম্পক গভীর করে তোলে।

আর এতেই ইসলাম ধর্ম গ্রহণের আগ্রহ বেড়ে যায় রাধীকা রায়, তার স্ত্রী ও অন্যান্য সন্তানদের। এক পর্যায়ে স্বেচ্ছায় স্বজ্ঞানে ধর্ম পরিবর্তন করে ইসলম ধর্ম গ্রহণের সিদ্ধান্ত নেন তারা। এরই প্রেক্ষিতে আইনী মাধ্যমে তারা ইসলাম ধর্মের প্রতি নিজের আনুগত্য প্রকাশ করে, কালেমা শাহাদাত পাঠ করে ইসলাম ধর্মগ্রহণ করেন।

ধর্মগ্রহণকারীরা হচ্ছেন, ওসমানীনগরের সাদিপুর ইউনিয়নের সাদিপুর গ্রামের মৃত রাধা রসন রায়ের পুত্র রাধীকা রায় (৯০) (বর্তমান নাম আব্দুল্লাহ মোহাম্মদ), রাধীকা রায়ের স্ত্রী সিন্দু রানী রায় (৭৫) (বর্তমান নাম খাদিজাতুল কুবরা), রাধীকা রায়ের পুত্র নিথিশ রায় (৩৪) (বর্তমান নাম আব্দুল্লাহ ওমর), নিথিশ রায়ের স্ত্রী ঝুমা রাণী রায় (৩৩) (বর্তমান নাম উম্মে কুলসুম), নিথিশ রায়ের দুই পুত্র সজীব রায় (১০) (বর্তমান নাম আব্দুল্লাহ জায়েদ) ও সূর্য রায় (৪) (বর্তমান নাম আব্দুল্লাহ হোবাইদ)।

জুমবাংলানিউজ/এসএম

জুমবাংলা/এসএম/