বিনোদন

তোমাকে দেখলে আমার শিলার কথা মনে পড়ে: তিশাকে হ‌ুমায়ূন আহমেদ

হ‌ুমায়ূন আহমেদ তিশার অভিনয়ের প্রশংসা করেছিলেন। ‘ডুব’ সিনেমা মুক্তির আগে এক আলাপচারিতায় জানালেন নুসরাত ইমরোজ তিশা। তিনি জানান, হ‌ুমায়ূন আহমেদ তাঁকে অটোগ্রাফসহ একটি বইও উপহার দিয়েছিলেন। হ‌ুমায়ূনের সঙ্গে কাজের অভিজ্ঞতা প্রসঙ্গে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘একটি সিঙ্গেল নাটকে হ‌ুমায়ূন আহমেদের সঙ্গে কাজ করার সৌভাগ্য হয়েছিল।’

২০০০ বা ২০০১ সালে তিশা যখন সপ্তম বা অষ্টম শ্রেণির শিক্ষার্থী, তখন হ‌ুমায়ূন আহমেদ তাঁর জন্য লিখেছিলেন ‘ফুলি’ চরিত্রটি। নাটকে ফুলির কয়েকটি দৃশ্য ছিল। ওই বছর ঈদে চ্যানেল আইতে দেখানো হয় নাটকটি। ‘প্যাকেজ সংবাদ’ নাটকে অভিনয় করেছিলেন শিশুশিল্পী তিশা। শামীমা নাজনীনের পরিচালনায় ওই নাটকে আরও অভিনয় করেছিলেন আতাউর রহমান, ওয়াহিদা মল্লিক জলি, জাহিদ হাসান, তারিন, আবদুল কাদের, শমী কায়সার প্রমুখ।

তিশা বলেন, ‘শাওন আপার পরিচালনায় একটি নাটকের শুটিংয়ের সময় হ‌ুমায়ূন আহমেদ স্যারকে জানার কিছুটা সুযোগ হয়। সেখানে দেখেছি, সব সময় ম্যাচিং পোশাক পরে ছেলেকে নিয়ে আসতেন তিনি। গল্প করতেন, খাবার খেতেন। খুব রসিক মানুষ ছিলেন, রসিয়ে রসিয়ে গল্প করতেন। সুন্দর করে কথা বলতেন। শুটিং শেষে একদিন আমাকে ডেকে কিছুক্ষণ কথা বললেন, তারপর আমাকে একটা বই উপহার দেন। বললেন, “তোমার অভিনয় আমি পছন্দ করি। তোমাকেও খুব পছন্দ করি, কারণ তোমাকে দেখলে আমার শিলার কথা মনে পড়ে।” তারপর তিনি আমাকে লিখে দিয়েছিলেন, “শীলার মতো দেখতে যে মেয়ে/ সুন্দর অভিনয়। তিশাকে হ‌ুমায়ূন আহমেদ/ ৫-২-২০১০।” বইটির নাম “রাক্ষস খোক্কস এবং ভোক্কস”।’