আন্তর্জাতিক

তুরস্ক সমর্থিত বিদ্রোহীরা আল-বাব শহর দখলের পথে

ইসলামিক স্টেটের (আইএস) হাত থেকে উত্তর সিরিয়ার আল-বাব শহর নিজেদের নিয়ন্ত্রণে নেওয়ার পথে রয়েছে তুর্কি সেনাবাহিনী সমর্থিত সিরীয় বিদ্রোহীরা। এরই মধ্যে তারা শহরটির আশেপাশের এলাকাগুলো দখল করে নিয়েছে বলে তুর্কি সরকার ও সিরীয় বিদ্রোহীদের কয়েকটি সূত্র নিশ্চিত করেছে।

এক বিবৃতিতে তুর্কি সেনাবাহিনী বলেছে, বিমান হামলা, গোলা নিক্ষেপ এবং সম্মুখযুদ্ধে আল-বাব শহরের কাছে ৫৮ আইএস যোদ্ধা নিহত হয়েছেন। এছাড়া দুই তুর্কি সেনা নিহত এবং ১৫ জন সামান্য আহত হয়েছেন। তুরস্ক সমর্থিত বিদ্রোহীরা আলেপ্পো প্রদেশের উত্তর দিক দিয়ে আইএসের উপর আক্রমণ চালায়। এদিকে সিরীয় সেনাবাহিনীও আল-বাবের দিকে অগ্রসর হওয়ায় এখন তুর্কি বাহিনী ও তাদের মিত্র ‘ফ্রি সিরিয়ান আর্মির সঙ্গে তাদের সংঘর্ষ বাধার ঝুঁকি বাড়ছে। এর আগে সিরীয় সরকারি বাহিনী ও তাদের মিত্ররা এর আগে আল-বাবের উপর দিয়ে তুর্কি সীমান্ত হয়ে আইএস নিয়ন্ত্রিত রাক্কা ও দেইর আল-জোর প্রদেশে যাওয়ার প্রধান সড়কটির দখল নেয়। মূলত এর মাধ্যমে আইএসের রসদ সরবরাহে বড় ধরনের বাধা সৃষ্টি করা সম্ভব হয়েছিল।

সিরিয়ার বহুমুখী গৃহযুদ্ধে সবচেয়ে জটিল লড়াই ক্ষেত্রগুলোর একটি দেশটির উত্তরাঞ্চল। সেখানে বর্তমানে সিরীয় সেনাবাহিনী, তুর্কি ও মিত্রবাহিনী এবং যুক্তরাষ্ট্র সমর্থিত সিরীয় বিদ্রোহীরা আইএসের বিরুদ্ধে লড়াই করছে। তিন পক্ষই আইএসকে হটিয়ে আলেপ্পোর দখল নিতে জোর প্রচেষ্টা চালাচ্ছে। তুরস্ক জানিয়েছে, সিরীয় বাহিনীর সঙ্গে সংঘর্ষ এড়াতে আন্তর্জাতিক সমঝোতার একটি ক্ষেত্র তৈরি হয়েছে। তুর্কি পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেছেন, অল্প সময়ের মধ্যে আল-বাবকে নিজেদের দখলে নিতে হবে। গত কয়েকদিনে আমাদের বিশেষ বাহিনী ও ফ্রি সিরিয়ান আর্মি (বিদ্রোহী) বেশ অগ্রগতি দেখিয়েছে। অপরদিকে, আগামী কয়েক সপ্তাহের মধ্যেই রাক্কাকে সম্পূর্ণভাবে মুক্ত করার আশার কথা জানিয়েছে আন্তর্জাতিক মিত্রবাহিনীর নেতৃত্বে থাকা মার্কিন সেনাবাহিনী।

Add Comment

Click here to post a comment