জাতীয় শিক্ষা

তীব্র শীতে এখনও আমরণ অনশনে মাদ্রাসার শিক্ষকরা

চতুর্থ দিনের মতো স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসা জাতীয়করণের দাবিতে আমরণ অনশনে রয়েছেন শিক্ষকরা। এর মধ্যে প্রচণ্ড শীতের কারণে অনেক শিক্ষক অসুস্থ হয়ে পড়েন।

অন্যান্য দিনের মতো শুক্রবারও জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে কর্মসূচি চালিয়ে যাচ্ছেন।

অনশনে থাকা শিক্ষকরা জানান, শীতে অসুস্থ হয়ে পড়লেও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা স্বতন্ত্র ইবতেদায়ি মাদ্রাসাগুলোকে জাতীয়করণের ঘোষণা না দেয়া পর্যন্ত তারা অনশন চালিয়ে যাবেন।

জাতীয়করণের দাবিতে ১ জানুয়ারি থেকে প্রেসক্লাবের সামনে অবস্থান নেন ইবতেদায়ি শিক্ষকরা। কিন্তু তাদের দাবি বাস্তবায়নের কোনো আশ্বাস না পেয়ে গত মঙ্গলবার থেকে তারা আমরণ অনশন শুরু করেন।

প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো এ মাদ্রাসাগুলোকে জাতীয়করণ করতে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার হস্তক্ষেপ চান শিক্ষকরা।

আন্দোলনকারীরা জানান, ১ হাজার ৫১৯টি ইবতেদায়ি মাদ্রাসার প্রধান শিক্ষক ২৫০০ টাকা, সহকারী শিক্ষক ২৩০০ টাকা ভাতা পান। বাকি মাদ্রাসা শিক্ষকরা ২৯ বছর ধরে বেতনভাতা থেকে বঞ্চিত।

এ অবস্থায় মানবেতর জীবনযাপন থেকে মুক্তি পেতে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের মতো ইবতেদায়ি মাদ্রাসাগুলো জাতীয়করণ করে মাদ্রাসাশিক্ষকদের বেতনভাতা বাড়ানোর দাবি জানান তারা।

উল্লেখ্য, এর আগে নন-এমপিওভুক্ত প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকরা দাবি আদায়ের লক্ষ্যে আন্দোলনে নামেন। গত ৫ জানুয়ারি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার পক্ষ থেকে আশ্বাস পেয়ে অনশন ভঙ্গ করে বাড়ি ফিরে যান তারা।