জাতীয়

ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে : স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। (ফাইল ছবি)

জুমবাংলা ডেস্ক: দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) কর্মকর্তাকে ঘুষ দেয়ার দায়ে পুলিশের উপমহাপরিদর্শক (ডিআইজি) মিজানুর রহমানের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে বুধবার জানিয়েছেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান। খবর ইউএনবি’র।

রাজধানীর বকশীবাজারে কারা অধিদপ্তর মিলনায়তনে তিনি সাংবাদিকদের বলেন, ‘এটা পরিষ্কার যে, তিনি (মিজান) দুদক কর্মকর্তাকে ঘুষ দিয়ে অপরাধ করেছেন। এ জন্য তিনি দণ্ডিত হবেন।’

একটি বেসরকারি টিভি চ্যানেলে রবিবার প্রচারিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ডিআইজি মিজানের বিরুদ্ধে পরিচালিত দুর্নীতির অনুসন্ধান থেকে তাকে দায়মুক্তি দিতে দুদক পরিচালক খন্দকার এনামুল বাসির ৪০ লাখ টাকা ঘুষের বিনিময়ে সমঝোতা করেন। তিনি রাজধানীর রমনা পার্কে বাজারের ব্যাগে করে ডিআইজি মিজানের কাছ থেকে ২৫ লাখ টাকা গ্রহণ করেন এবং বাকি ১৫ লাখ পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে দেয়ার কথা বলেন।

প্রতিবেদনটি প্রচারিত হওয়ার পর তথ্য পাচার ও শৃঙ্খলা ভঙ্গের অভিযোগে বাসিরকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করে দুদক।

সাংবাদিকদের সাথে আলাপের আগে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী সুরক্ষা সেবা বিভাগ আয়োজিত ‘উদ্ভাবনী মেলা ও শোকেসিং ২০১৯’ উদ্বোধন করেন।

সোনাগাজী থানার সাবেক ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোয়াজ্জেম হোসেনের গ্রেপ্তার প্রসঙ্গে প্রশ্ন করা হলে মন্ত্রী বলেন, পালিয়ে যাওয়ার সব পথ বন্ধ করে দেয়া হয়েছে। ‘তিনি পালাতে পারবেন না। তাকে শিগগিরই গ্রেপ্তার করা হবে।’

ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে আনা অভিযোগ তদন্তে সত্য প্রমাণিত হওয়ার পর ২৭ মে এক আদালত তাকে গ্রেপ্তারের আদেশ দেয়।

সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী সায়েদুল হক সুমন ১৫ মে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে ওসি মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে মামলা করেন।

মোয়াজ্জেমের বিরুদ্ধে ফেনীর মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফিকে বেআইনিভাবে জেরা এবং তা ফোনে রেকর্ড করে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে দেয়ার অভিযোগ আনা হয়।

চট্টগ্রাম কারাগারে অমিত মুহুরীর হত্যাকাণ্ড নিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এ ঘটনার সাথে জড়িতদের ছাড় দেয়া হবে না।

২৯ মে চট্টগ্রাম কেন্দ্রীয় কারাগারে একই সেলের বাসিন্দা রিপন নাথের হাতে খুন হন অমিত।

জুমবাংলানিউজ/একেএ