আন্তর্জাতিক

জোরপূর্বক খুলে নেওয়া হলো নারীর হিজাব, অত:পর

জোর করে হিজাব খুলে নেওয়ার জন্য পুলিশ অফিসারের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছিলেন এক মুসলিম নারী। সম্প্রতি সেই নারীকে ৮৫ হাজার ডলার দিয়ে পুরস্কৃত করা হয়েছে। যা ভারতী মুদ্রায় প্রায় ষাট লক্ষ টাকার কাছাকাছি।

ওই নারীর নাম ক্রিস্টি পাওয়েল। ২০১৫ সালে গাড়ি চালানোর সময় পুলিশ তাঁকে আটকায়। সঙ্গে ছিলেন তাঁর স্বামী। এরপর জোর করে হিজাব খুলে নেওয়ার ঘটনাটি ঘটে। এর পর ২০১৬ সালে তিনি পুলিশ ডিপার্টমেন্টের বিরুদ্ধে মামলা করেন । তার অভিযোগ ছিল, ডিপার্টমেন্ট তাঁর ফার্স্ট অ্যামেন্ডমেন্ট রাইট লঙ্ঘন করেছে।

এই সপ্তাহে ওই নারীর অভিযোগটি অনুমদিত হয়েছে। মামলার মীমাংসাস্বরূপ হিসেবে স্থানীয় মিউনিসিপ্যালিটি ক্রিস্টিকে ৮৫ হাজার ডলার দিতে হবে।
মামলায় বলা হয়েছে, তাঁকে জিজ্ঞাসাবাদের সময় অপমান সহ্য করতে হয়েছিল। তিনি কাঁদছিলেন। তাঁর ধর্মীয় বিশ্বাসে আঘাত লেগেছিল ।

মামলায় এও বলা হয়, হিজাব ছাড়াই পাওয়েলকে জনসমক্ষে আসতে বলা হয়। ঘটনায় তিনি অস্বস্তিতে পড়েন।

জানা গেছে, পাওয়েল ছিলেন যাত্রী। কিন্তু তাঁকে দোকান থেকে জিনিস চুরির দায়ে গ্রেপ্তার করা হয়। তাঁর স্বামী চেয়েছিলেন বিষয়টি কোনও নারী পুলিশ সামলান। কিন্তু পুলিশ অফিসার সেই অনুরোধে কান দেননি বলে অভিযোগ। পাওয়েলকে তাঁর হিজাব খুলতে বলা হয়। গোটা রাত হিজাব ছাড়াই জেলের ভিতর কাটান পাওয়েল। যখন তাঁর স্বামী বন্ড দেন, তখন হিজাব ফিরিয়ে দেওয়া হয়।-কলকাতা ২৪।