Exceptional News আন্তর্জাতিক

জেনে রাখুন এই ২৯টি অদ্ভুত বিয়ের প্রথা, যা আপনাকে অবাক করবে

২৯টি অদ্ভুত বিয়ের প্রথা-বিয়ে একটি সুখের বন্ধন। বিয়ের অনুষ্ঠানগুলো আত্মীয় বন্ধুবান্ধব বিয়ে মানুষ অনেক আনন্দ করে থাকে, বিভিন্ন সভ্যতা অনুযায়ী বিয়ের প্রথা ভিন্ন হয়ে থাকে। মূলত আমরা বিয়ের প্রথাগুলো ধর্মীয় এবং আনন্দদায়ক হতে দেখি। কিন্তু পৃথিবীতে এমন অনেক প্রথা আছে যা আসলেই আজব এবং বিরক্তিদায়ক। আসুন জানা যাক সেরকম কিছু আজব বিয়ের প্রথা সম্পর্কে !

২৯টি অদ্ভুত বিয়ের প্রথা

কালো করে দেয়াঃ স্কটিশগন বিয়ের আগের দিন কনে কে রঙ দিয়ে কালো বর্ণের করে তোলে। মূলত এর মাধ্যমে তারা তার ধর্য্য পরীক্ষা করে।

পুর্বেই কান্নার প্রস্তুতিঃ চিনে বিয়ের ১ মাস আগের থেকে কনে কে প্রতিদিন ১ ঘন্টা করে কাঁদতে হয় । কারন বউভাতের দিন তাকে বিভিন্ন সুরে অনেকক্ষন যাবত কাঁদতে হবে এবং এই কান্নার কারনে বিবাহিত জীবনে তার কোন প্রকারে বিপদ আসবে না।

মুরগীর বাচ্চার কলিজাঃ মঙ্গোলিয়ায় বিয়ের দিন ঠিক করার জন্য কনে এবং বর কে মুরগীর বাচ্চা জবাই দিতে হয় এবং তার কলিজা বের করে আনতে হয়। যদি তার কলিজা ভাল থাকে তবেই তারা বিয়ের দিন ঠিক করতে পারে ।

গাছ বিবাহঃ ভারতে যে সকল মেয়ের মাঙ্গলিক বা অভিশপ্ত বলে মনে করে তাদেরকে আগে গাছের সাথে বিয়ে দেয়া হয় এবং বিবাহিত গাছ কে কেটে ফেলা হয় এর মাধ্যমে মেয়েটি অভিশাপ মুক্ত হয়েছে বলে ধারনা করা হয়।

বাথরুম বন্ধঃ উত্তর ব্রুনেও তে আদিবাসিরা বিয়ের ৩দিন কনে আর বর কে বাথরুম করতে দেন না।

তিমির দাঁতঃ ফিজিতে কোনো পুরুষ যদি তার পছন্দের মেয়েকে বিয়ে করতে চান তাইলে মেয়ের বাবাকে বিবাহের প্রস্তাব দেবার সময় তিমির দাঁত সাথে করে নিয়ে যেতে হয়।

২সন্তানঃ দক্ষিণ সুদানে বিশ্বাস করা হয় বিবাহ তখন সম্পূর্ণ হয় যখন একজন মহিলা তার স্বামী কে ২টি সন্তান দিতে পারবে তা না হলে স্বামী তার স্ত্রীকে ডিভোর্স দিতে পারবে।

থুথু মারাঃ কেনিয়াতে কনের বাবা কনে কে আশীর্বাদের সময় তার মাথায় এবং বুকে থুথু ছিটিয়ে দেয় ।

চুমু খাওয়াঃ সুইডেনে কনে / বর যদি অনুষ্ঠানের মধ্যে বাথরুমে যায় তাইলে অন্যান্য পুরুষ এবং নারিরা কনে/ বরের যে থাকবে তাকে চুমু খাবে।

মাথা কামানোঃ স্পার্টান কনে দের বিয়ের আগে চুল ফেলে পুরু মাথায় ন্যাড়া করে নিতে হয় এবং ছেলেদের মত পোশাক পড়তে হয় ।

ময়লা উপহারঃ ফ্রান্সে বিয়ের পরে কনে এবং বরের বন্ধুরা অনুষ্ঠানের সকল ময়লা একত্রিত করে তাদের উপহার দেয় এবং তাদের কে তা গ্রহন করতে হয়।

পা তুলে নৃত্যঃ আয়ারল্যান্ডে বিয়ের পরে কনে-কে নাচার সময় পা মেঝে তেকে উপরে তুলে নাচতে হবে। বিশ্বাস করা হয় পা মাটিতে ঠেকলে অশুভ আত্মা এসে তাকে নিয়ে যাবে।

খড় বালকঃ আইরিশ দের মধ্যে ৯ জন বালক কে খড় বালক বলা হয় তারা কনের ঘর বানায় দেয় এবং তার সাথে নাচে ।

তীর মারাঃ চিনে বর , কনে কে ৩ বার তীর ছুঁড়ে মারবে । ভয় পাওয়ার কিছু নাই এই তীরগুলো কোন মাথা থাকে না।

মানুষের বিছানাঃ মারকুস দ্বীপপুঞ্জে বিয়ের পরে কনে এবং বরের বন্ধু এবং আত্মীয়রা মাটিতে শুয়ে পরে এবং কনে ও বর কে তার উপর দিয়ে হেটে যেতে হয়।

জুতা লুকানোঃ ভারতে বিয়ের সময় কনে পক্ষের মেয়েরা বরের জুতা চুরি করে , এবং বর পক্ষের ছেলেরা জুতা পাহারা দেয় যদি কনে পক্ষ চুরি করতে পারে তবে তারা মোটা অঙ্কের টাকা আদায় করতে পারে।

প্লেট ভাঙ্গাঃ জার্মানিতে বিয়ের পরে উপহার পাওয়া প্লেট গুলো কনে এবং বর কে ভেঙ্গে ফেলতে হয় এতে করে তারা অশুভ আত্মাকে দূরে পাঠায় দেয়।

পশু বিবাহঃ ভারতের কিছু জায়গায় অশুভ আত্মাকে দূরে রাখার জন্য পশুর সাথে বিয়ে দেয়া হয়।

বাসর ঘরে ঢুকে দেখাঃ আফ্রিকাতে কিছু অংশে কনে এবং বরকে চমকানর জন্য শাশুড়ি রা বাসর ঘরে চলে আসেন ।

হাসা যাবে নাঃ কঙ্গো তে বিয়ের সময় কেও হাসতে পারবে না।

অপহরন করাঃ আফ্রিকাতে বিয়ের আগে কনে কে অপহরন করা হয় অনেক সময় ট্রেডিশন অনুযায়ী তাকে ধর্ষন করাও হয়।

বিরক্ত করাঃ ফ্রান্সে বিয়ের পরেরদিন কনে এবং বরের বাসায় এসে তাদের কে বিরক্ত করা হয় , শব্দ করে চিল্লা চিল্লি করে তাদের উত্তেজিত করার চেষ্টা করা হয় । এই সময় কনে এবং বর কে তাদের শান্ত করার জন্য খাবার আর পানীয়ের ব্যবস্থা করা হয়।

মাছের কামড়ঃ কোরিয়াতে বিয়ের আগের দিনে বরের বন্ধুরা বরের পায়ে মাশের কামড় খেতে দেয়।

মোটা মেয়েঃ মারুতিতে বিশ্বাস করা হয় -“যত মোটা তত সুখ” তাই বিয়ের আগে তারা মেয়েদের মোটা বানানোর ফার্মে প্রেরন করেন।

সাদা জামা নাঃ পশ্চিমা দেশগুলোতে সাদা রঙের পোশাক কে বিয়ের পোশাক মনে করা হলেও কোন কোন দেশে সাদা পোশাক কে মৌনতার পোশাক মনে করা হয় ।

পায়ের তলায় মারাঃ কোরিয়াতে বিয়ের রাতে যাতে বউকে সন্তুষ্ট করতে পারে এই জন্য বরের পায়ের তলায় মারায় হয় ।

যৌতুকঃ রাশিয়াতে বিয়ের সময় বর পক্ষ কনে পক্ষ কে যৌতুক দেয় যদি যৌতুক মন মত না হয় তবে বিয়ে ভেঙ্গে যায়।

উপহার ভেঙ্গে ফেলাঃ অনেকদেশে বিয়ের পরে কনে এবং বর বিয়ের পর সকল উপহার ভেঙ্গে ফেলে যাতে করে অন্যকার অশুভ কিছু তাদের সংসারে প্রবেশ করতে না পারে।

প্রতিশোধ নেয়াঃ বিয়ের পরে ডিভোর্স যাতে না হয় এই জন্য ইউক্রেনের যুগলরা তাদের বিয়ের সম্বন্ধ করে দেয়া ব্যক্তির কুশপুত্তলিকা পুড়িয়ে ফেলে।

বিয়ে মূলত দুটি মানুষকে চির জীবনের জন্য এক করে দেয়ার একটি প্রথা যা মানব সভ্যতাকে বিকাশের জন্য যুগ যুগ ধরে বিদ্যমান। বিয়েকে টিকিয়ে রাখার জন্য পরস্পরের প্রতি শ্রদ্ধাবোধ থাকা আবশ্যকীয়। অপরকে সুখি করার জন্য আগে নিয়ে ভাল থাকুন , নিজেকে ভালবাসুন এবং নিজের প্রতি শ্রদ্ধাশীল হন।